করোনায় মৃত্যু নামল পাঁচের নিচে, শনাক্তের হার ১.৩২

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২১:২১ | প্রকাশিত : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৪৯
ছবি: সংগৃহীত।

দেশে গত এক দিনে মহামারি করোনাভাইরাসে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর এ সংখ্যা গত ১৭ মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। এর চেয়ে কম মৃত্যু হয়েছিল গত বছরের ৬ মে। সেদিন তিনজনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এদিকে উল্লেখিত সময়ে ২৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে, যাতে শনাক্তের হার কমে ১.৩৬ শতাংশ হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে আরও বলা হয়, গত এক দিনে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৭ হাজার ১০০ জনের। এ পর্যন্ত ১ কোটি ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬২৩টি নমুনা পরীক্ষায় এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ১৩৯ জন, যাতে মোট শনাক্তের হার ১৫.৩৮ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত এক দিনে যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২ জন ও নারী ২ জন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১ জন ও বরিশাল বিভাগে একজন মারা গেছেন। এছাড়া খুলনা, রাজশাহী, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে কেউ মারা যায়নি।

এছাড়া গত এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ৫৬৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ ১৫ লাখ ৩০ হাজার ৬৪৭ জন।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। আর এর ১০ দিন পর প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। এরপর কয়েক মাস মৃত্যু ও শনাক্ত ঊর্ধ্বগতিতে থাকার পর গত বছরের শেষ দিকে এসে তা অনেকটা কমে যায়। চলতি বছরের প্রথম তিন মাস অনেকটা নিয়ন্ত্রণে ছিল করোনা পরিস্থিতি। তবে মার্চের শেষ দিক থেকে দেশে বাড়তে থাকে করোনার প্রকোপ। এটাকে বিশেষজ্ঞরা করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা বলে জানান।

গত এপ্রিল মাস থেকে বাড়তে থাকা করোনার প্রকোপ চরম আকার ধারণ করে জুলাইয়ে। এই মাসে এক দিনে সর্বোচ্চ ২৬৪ জন মৃত্যুর খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া দিনে শনাক্তের সংখ্যাও ১৫ হাজার ছাড়ায়। তবে আগস্টের শেষ দিক থেকে করোনার প্রকোপ কমতে থাকে। সেপ্টেম্বর মাস পুরোটাই করোনার প্রকোপ নিম্নমুখী ছিল। অক্টোবরেও তা অব্যাহত রয়েছে।

দেশে করোনা পরিস্থিতি মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে সংস্থাটি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর জোর দিয়েছে। যেকোনো সময় করোনা আবার জটিল আকার ধারণ করতে পারে বলেও সতর্ক করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

(ঢাকাটাইমস/২২অক্টোবর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :