মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে সেনাবাহিনীর গাড়ি, নিহত ৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪৪

ফের রক্তাক্ত মিয়ানমার । গণতন্ত্রকামীদের পিষে দিল সেনার গাড়ি। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে অন্তত পাঁচজনের। গুরুতর আহত অনেকেই। এই নৃশংস ঘটনার ভিডিও দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ফলে আরও চাপ বেড়েছে সামরিক জান্তার উপর।

দেশে সেনা অভ্যুত্থানের বিরোধিতায় রবিবার ইয়াঙ্গুনে জড়ো হয়েছিলেন গণতন্ত্রকামীরা। তখন আচমকা সেই জমায়েতের মধ্যে দিয়ে তীর বেগে ছুটে আসে বার্মিজ সেনার একটি গাড়ি। মুহূর্তে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে পিষে দেয় যানটি। রাস্তার দুইপাশে ছিটকে পড়েন বেশ কয়েকজন।

এই ঘটনায় প্রাণ গিয়েছে কমপক্ষে পাঁচজনের। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, আহতের সংখ্যা কমপক্ষে ৩০।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ‘মিয়ানমার নাউ’ জানিয়েছে, ইয়াঙ্গুন শহরে ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বর্তমানে দেশের শাসনভার যাদের দখলে সেই জান্তা প্রশাসন অবশ্য এই ঘটনা প্রসঙ্গে মুখে কুলুপ এঁটেছে। তবে সেনার তরফে দাবি, বিক্ষোভকারীরাই প্রথমে হিংসাত্মক হয়ে উঠেছিল। তাদের সামাল দিতে গিয়েই এই পরিস্থিতি।

এদিকে, এই নরীসহিংস ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কোনওটাতে দেখা যাচ্ছে, কীভাবে হঠাৎ জমায়েতের পিছন থেকে এসে ধাক্কা মারে গাড়িটি। কোনওটিতে আবার উঠে এসেছে রাস্তার ধারে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা একাধিক বিক্ষোভকারীর নিথর শরীরের ছবি।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে আচমকা দেশের ক্ষমতা কেড়ে নেয় সেনাবাহিনী। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচিত সরকারকে উপড়ে ফেলে নেত্রী আং সান সু কি-কে বন্দি করা হয়। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা চলছে। এ তারপরও গণতন্ত্র ফেরানোর দাবিতে দেশজুড়ে শুরু হয় তুমুল বিক্ষোভ। পাল্লা দিয়ে দমনপীড়ন শুরু করে সর্বশক্তিমান জুন্টা। এপর্যন্ত সেনাবাহিনীর অত্যাচারে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে দেড় হাজার মানুষের।

(ঢাকাটাইমস/৬ডিসেম্বর/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :