আঙুলের ছাপ না মিললেও ভোট দিতে পারবেন, ইসির প্রস্তাব যাবে আইন মন্ত্রণালয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:৪৭ | প্রকাশিত : ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৪

একটি ভোটকেন্দ্রের ১ শতাংশ ভোটারের বায়োমেট্রিক ডাটার সঙ্গে আঙুলের ছাপ না মিললেও তারা ভোট দিতে পারবেন। এমন একটি প্রস্তাব চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। প্রস্তাবটি গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে (আরপিও) অন্তর্ভুক্ত করতে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘ওই প্রস্তাবে সর্বোচ্চ এক শতাংশ ভোটারের জন্য নির্বাচন কর্মকর্তাদের ইভিএমের ডিজিটাল ব্যালট ইউনিট খুলে দেওয়ার ক্ষমতার কথা বলা হয়েছে।’

বর্তমানে ইসি প্রিসাইডিং অফিসার ও সহকারী প্রিসাইডিং অফিসারদের এ ক্ষমতা প্রয়োগের অনুমতি দিতে পারে। আরপিওর জন্য নতুন প্রস্তাবটি পাস হলে তা আইনি ভিত্তি পাবে।

প্রস্তাবটি আইনে পরিণত হলে একটি ভোটকেন্দ্রের এক শতাংশ ভোটারের আঙুলের ছাপ না মিললেও ভোট দেওয়ার সুযোগ থাকবে। এর বেশি সংখ্যক ভোটারের আঙুলের ছাপ না মিললে তাদের ভোট দেওয়ার সুযোগ থাকবে না।

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেন, ‘যাদের আঙুলের ছাপ মিলছে না, তাদেরও ভোট দেওয়ার অধিকার আছে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা যাচাই-বাছাই শেষে ভোটারকে ভোট দেওয়ার অনুমতি দেবেন। ভোটার গোপন বুথে গিয়ে নিজেই ভোট দেন। ভোটকেন্দ্রের সর্বোচ্চ ১ শতাংশ ভোটারকে এই সুবিধা দেওয়ার সুযোগ আছে প্রিসাইডিং অফিসারের।’

‘বিষয়টি নিয়ে যেন সন্দেহ না থাকে সেজন্য একে আইনি কাঠামোয় আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইসি এ বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের কাছে প্রস্তাব পাঠাবে,’ যোগ করেন তিনি।

সাম্প্রতিক স্থানীয় নির্বাচনগুলোয় ইভিএম ব্যবহার করা হয়। অনেক এলাকায় ভোটারদের আঙুলের ছাপ না মেলার অভিযোগ ওঠে। ইসি কর্মকর্তারা বলছেন, বার্ধক্যের কারণে, দুর্ঘটনা বা আঙুলের চামড়া ক্ষতিগ্রস্ত হলে মিল পাওয়া কঠিন হয়।

এর আগে এ বিষয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সেক্রেটারি বদিউল আলম মজুমদার গণমাধ্যমকর্মীদের বলেছিলেন, কর্মকর্তারা ভোটকেন্দ্রের ১ শতাংশ ভোটারের জন্য ব্যালট ইউনিট খুলে দিতে পারবে। তবে, গত সংসদ নির্বাচনে কর্মকর্তারা ২৫ শতাংশ ভোটারের জন্য ব্যালট ইউনিট খুলেছিল বলে গণমাধ্যমে এসেছে।

'কে নিশ্চিত করবে যে নির্বাচন কর্মকর্তারা তাদের ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন না, তাদের যে সর্বোচ্চ ১ শতাংশ ভোটারের কথা বলা হলো, তারা যে ১০ শতাংশের ক্ষেত্রে এমন করবেন না, তা কে নিশ্চিত করবে,’ প্রশ্ন করেন তিনি।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বোচ্চ ১৫০ আসনে ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। যদিও প্রধান বিরোধী দলগুলোর অবস্থান এখনো ইভিএমের বিরুদ্ধে।

(ঢাকাটাইমস/০৪অক্টোবর/এএ/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

১০ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি নৌযান শ্রমিকদের

বিদেশিদের উপদেশের প্রয়োজন নেই, সময় হলে অ্যাকশন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্ষমতায় এসে বিএনপির অত্যাচার ছিল হানাদার বাহিনীর মতো: প্রধানমন্ত্রী

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ছাড়া বড় জমায়েত সম্ভব নয়

পালিয়ে যাওয়া জঙ্গিদের লোকেশন শিগগির পাওয়া যাবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ আইনজীবীদের তালিকা চেয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট

আমনের দাম বেড়েছে মণপ্রতি ৩০০ টাকা, চাষির মুখে খুশির ঝিলিক

যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি করেছি: প্রধানমন্ত্রী

বিমান যোগাযোগ বাড়াতে আরও সহযোগিতা চায় সংযুক্ত আরব আমিরাত

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন আইওআরএ মন্ত্রীরা

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :