শেখ হাসিনাসহ নৌকায় লড়বেন ২৪ নারী

হাসান মেহেদী, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২৩, ২১:৫০ | প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০২৩, ২১:২৮

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচনে সারাদেশে ২৪টি আসনে নারী সংসদ সদস্য প্রার্থী দিচ্ছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। রবিবার বিকালে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এসময় ৩০০ আসনের মধ্যে ২৯৮ আসনে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের তালিকা থেকে জানা গেছে ২৪টি সংসদীয় আসনের প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন ২৪ জন নারী নেত্রী।

এর মধ্যে গোপালগঞ্জ-৩ আসন থেকে মনোনয়ন নিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনাকে তার অনুপস্থিতিতে দলের সভাপতি নির্বাচিত করে আওয়ামী লীগ। ছয় বছরের নির্বাসিত জীবন শেষ করে তিনি ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফিরে আসেন। শেখ হাসিনা ৭ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। ১৯৮৬, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৮, ২০১৪ ও সর্বশেষ ২০১৯ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। আর পরপর ৩ বার সহ ৪ বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন শেখ হাসিনা।

শেরপুর-২ (নকলা ও নালিতাবাড়ী) আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মতিয়া চৌধুরী। তিনি সর্বশেষ একাদশ জাতীয় সংসদে পঞ্চমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর আগে ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০৮, ২০১৪ এই আসন থেকে নির্বাচিত হন মতিয়া চৌধুরী। তিনি তিনবার সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। মতিয়া চৌধুরী জাতীয় সংসদের উপনেতা আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

চাঁদপুর-৩ আসন থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন, ডা. দীপু মনি। তিনি সর্বশেষ ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে এই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। একইসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। দীপু মনি বাংলাদেশের প্রথম নারী শিক্ষামন্ত্রী। এছাড়াও ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নে নির্বাচিত হন এবং দেশের প্রথম মহিলা পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও দলীয় প্রার্থী হিসেবে চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। ডা. দীপু মনি আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ঢাকা-৪ (শ্যামপুর-কদমতলী) আসন থেকে এবার প্রথম বারের মত দলীয় মনোনয়ন পেলেন অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম। সর্বশেষ ১০ম জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। এর আগে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন সানজিদা। বর্তমানে তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য।

গাজীপুর-৩ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন এই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রহমত আলীর মেয়ে রুমানা আলী। তিনি একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি অর্থ মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমেটির সদস্য হিসেবে নিয়োজিত আছেন।

গাজীপুর-৪ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সিমিন হোসেন (রিমি)। ২০১৪ সালে ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। এছাড়াও ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে গাজীপুর-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে সিমিন হোসেন রিমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। রিমি বর্তমানে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য হিসেবে দলীয় দায়িত্ব পালন করছেন।

গাজীপুর-৫ থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মেহের আফরোজ চুমকি। সর্বশেষ ২০১৮ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহের আফরোজ চুমকি গাজীপুর-৫ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও ১৯৯৬-২০০১ সালে তিনি প্রথমে গাজীপুরের সংরক্ষিত মহিলা আসন থেকে এবং পরবর্তীতে গাজীপুর-৫ আসন থেকে ২০০৯-২০১৩ এবং ২০১৪ সালের সংসদ নির্বাচনে সরাসরি ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। মেহের আফরোজ চুমকি মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

কুমিল্লা-২ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন সেলিমা আহমাদ। ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সেলিমা আহমেদের স্বামী ব্যবসায়ী নেতা ও এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ। এছাড়াও তিনি নিটল-নিলয় গ্রুপের ভাইস চেয়ারপার্সন এবং বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি। সেলিমা আহমাদ বর্তমানে রাষ্ট্রয়াত্ত্ব ব্যাংক জনতা ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

রংপুর-৬ আসন থেকে শিরীন শারমিন চৌধুরী মনোনয়ন পেয়ছেন। তিনি বাংলাদেশের প্রথম এবং সর্বকনিষ্ঠ নারী স্পিকার হিসেবে নবম জাতীয় সংসদের স্পিকার নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি বাংলাদেশ সরকারের মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। ২০১৮ সালের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং ২০১৯ সালের ৩ জানুয়ারি পুনরায় জাতীয় সংসদের স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

গাইবান্ধা-২ মাহাবুব আরা বেগম গিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি জাতীয় সংসদের হুইপ এবং গাইবান্ধা-২ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য। এছাড়াও ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মাহাবুব আরা বেগম গিনি।

গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্যাপুর-পলাশবাড়ী) আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উম্মে কুলসুম স্মৃতি। ২০১৪ সালের ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংরক্ষিত নারী ১ম বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়াও ২১ মার্চ ২০২০ সালের গাইবান্ধা-৩ আসনের উপনির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৯ সালের ৬ নভেম্বর জাতীয় সম্মেলনে বাংলাদেশ কৃষক লীগ এর জাতীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন উম্মে কুলসুল স্মৃতি।

সিরাজগঞ্জ-২ আসনে মোছা. জান্নাত আরা হেনরী আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগের সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দলীয় দায়িত্ব পালন করেছেন।

বাগেরহাট-৩ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন হাবিবুন নাহার। হাবিবুন নাহার ২০০৮ সালে এই আসন থেকে প্রথমবারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।২০১৪ সালের নির্বাচনে একই আসনে তার স্বামী তালুকদার আবদুল খালেক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। ২০১৮ সালের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হাবিবুন নাহার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

বরগুনা-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন সুলতানা নাদিরা।বর্তমানে তিনি একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার স্বামী গোলাম সবুর টুলু বরগুনা-২ আসনের সাংসদ ছিলেন।

ময়মনসিংহ-৩ আসন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিলুফার আনজুম আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও প্রধানমন্ত্রীর সাবেক বিশেষ সহকারী প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী।

কিশোরগঞ্জ-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন সৈয়দা জাকিয়া নূর।তিনি মুক্তিযুদ্ধকালীন বাংলাদেশের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের মেয়ে এবং আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট বোন। বর্তমানে জাকিয়া নূর লিপি কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য।

মানিকগঞ্জ-২ আসন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে তৃতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন দেশের ফোক গানের ‘সম্রাজ্ঞী’ মমতাজ বেগম। গান গেয়ে সারা দেশে পরিচিতি এবং জনপ্রিয়তা লাভ করা মমতাজ প্রথমে ২০০৯ সালে নবম জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মনোনীত হন।এরপর ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানিকগঞ্জ-২ আসন থেকে এই গায়িকাকে নৌকার প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। সে বার তিনি ভোটে নির্বাচিত হয়ে সংসদ সদস্য হন। ফলে ২০১৮ সালে আবারও তাকে এই আসন থেকে মনোনয়ন দেয় আওয়ামী লীগ।

বরিশাল-৪ আসনে পঙ্কজ দেব নাথের পরিবর্তে শাম্মী আহমেদকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। শাম্মী আহমেদ দলটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহম্মেদ।

মুন্সীগঞ্জ-২ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি। তিনি প্রথম ১৯৯৬ সালে সংসদের সংরক্ষীত মহিলা আসনের সদস্য মনোনীত হয়েছিলেন। তিনি মুন্সীগঞ্জ-২ থেকে ২০০৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ ২৪ জানুয়ারি ২০০৯ সালে তাকে সংসদের হুইপ হিসেবে নিয়োগ দেন। এমিলি ৫ জানুয়ারি ২০১৪ সাধারণ নির্বাচনে পুনরায় জয়ী হন। আওয়ামী লীগের ডাকা সরকার বিরোধী হরতালে ২০০৪ খ্রিষ্টাব্দের ২৫ আগস্ট গ্রেপ্তার হন। গ্রেপ্তারের সময় অন্যান্য নারী নেত্রীদের সঙ্গে তাকেও পুলিশের গাড়িতে টেনে হিঁচড়ে ওঠানো হয়, সেসময় কারো কারো কাপড় ছিঁড়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে মুক্তিযোদ্ধা ফরিদুন্নাহার লাইলীকে মনোনয়ন দিয়েছেন আওয়ামী লীগ। কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সহসভাপতি ছিলেন তিনি। নবম জাতীয় সংসদের মহিলা আসন থেকে তিনি মনোনীত সংসদ সদস্য ছিলেন। তিনি জেনিথ ইসলামি লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান। তিনি বর্তমানে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে ফলের ফায়িতব পালন করছেন।

গাইবান্ধা-১ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন আফরোজা বারী। তিনি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়কের দায়িত্ব পালন করছেন।

বগুড়া-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন সাহাদারা মান্নান। সাহাদারা মান্নান সারিয়াকান্দি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বগুড়া জেলা পরিষদের সদস্য। তিনি ২০২০ সালে বগুড়া-১ আসন আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুর পর এই আসনটির উপনির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

চট্টগ্রাম-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন খাদিজাতুল আনোয়ার। তিনি একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসন থেকে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য। চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও ফটিকছড়ির সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম আলহাজ্ব রফিকুল আনোয়ার এমপির মেয়ে খাদিজাতুল আনোয়ার

কক্সবাজার-৪ আসনে আলোচিত সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির স্ত্রী শাহীন আক্তার। বদি ও শাহীন আক্তার দু’জনেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। তবে চূড়ান্ত মনোনয়ন তুলে দেয়া হলো শাহীন আক্তারের হাতেই।প্রসঙ্গত, গত নবম ও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আবদুর রহমান বদি।

(ঢাকাটাইমস/২৬নভেম্বর/এইচএম/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

এবার দল পুনর্গঠনে বিএনপি 

বিদ্যুৎ খাতে লুণ্ঠন নীতির মাশুল জনগণ দেবে না: গণতন্ত্র মঞ্চ

বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চলছে: ওবায়দুল কাদের

সদ্য কারামুক্ত আলালের বাসায় গয়েশ্বর

৭৪ সালে দুর্ভিক্ষের চক্রান্তে বিএনপির এক নেতার বাবা জড়িত ছিলেন: প্রধানমন্ত্রী

জনগণের প্রতি প্রতিশোধ নিতেই সরকার বিদ্যুৎ ও জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি করতে চাচ্ছে: রিজভী

মাতৃভাষা দিবসে যুক্তরাজ্য জিয়া পরিষদের আলোচনা সভা

রক্তে অর্জিত ভাষাকে বিদেশি আগ্রাসন থেকে রক্ষা করতে হবে: শিবির সভাপতি

কখনো যুব মহিলা লীগ নেত্রীর দুলাভাই কখনো স্বামী, অবশেষে প্রতারণা মামলায় গ্রেপ্তার

উপজেলা নির্বাচনে জামানত বৃদ্ধির প্রস্তাব অস্বাভাবিক: মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কাউন্সিল

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :