রেলের শিডিউলে পরিবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:৫৫

বড় পরিবর্তন আসছে বাংলাদেশ রেলওয়ের ট্রেন পরিচালনার সময়সূচিতে। বর্তমানে চলাচল করা ১০২টি আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে ৪৩টির যাত্রা শুরুর সময়ে আসছে পরিবর্তন। এর মধ্যে ২০টির সময় কিছুটা এগিয়ে আনা হয়েছে। আর ২৩টির সময় পেছানো হয়েছে।

আজ শুক্রবার থেকে ৫৩তম এই ওয়ার্কিং টাইম টেবিল কার্যকর করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

এর আগে, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে ৫২তম ওয়ার্কিং টাইম টেবিল কার্যকর হয়েছিল। এ হিসাবে প্রায় চার বছর পর সময়সূচিতে বড় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে।

নতুন সময়সূচিতে ঢাকা থেকে কক্সবাজারের নতুন ট্রেন কক্সবাজার এক্সপ্রেসও স্থান পেয়েছে। এছাড়া, চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহ রেল রুটে চলাচলকারী বিজয় এক্সপ্রেস জামালপুর পর্যন্ত, রাজশাহী থেকে মধুমতী এক্সপ্রেসকে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা পর্যন্ত এবং ঢালারচর থেকে রাজশাহী পর্যন্ত ঢালারচর এক্সপ্রেসকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত রেলপথ ডাবল লাইনে উন্নীত হওয়ায় এই পথের যাত্রার সময় ২০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত কমে এসেছে।

ঢাকা থেকে সিলেট পর্যন্ত ট্রেনগুলোর মধ্যে কয়েকটির যাত্রার সময় বেড়েছে, আবার কয়েকটির কমেছে। পশ্চিম অঞ্চলের আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর বেশিরভাগেরই যাত্রার সময় বেড়েছে।

নতুন সময়সূচি অনুযায়ী, আজ শুক্রবার কক্সবাজার এক্সপ্রেসের মাধ্যমে ঢাকা-কক্সবাজার রেল রুটে ট্রেন চলাচল শুরু হবে। ট্রেনটি কক্সবাজার থেকে দুপুর সাড়ে ১২টায় ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছাবে রাত ৯টা ১০ মিনিটে। আবার ঢাকা থেকে সাড়ে ১০টায় ছেড়ে কক্সবাজারে পৌঁছাবে পরদিন সকাল ৭টা ২০ মিনিটে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে মোট ছয়টি ট্রেনের মধ্যে পাঁচটির যাত্রার সময় অপরিবর্তিত থাকছে। এই পথে কেবল তূর্ণা এক্সপ্রেস রাত সাড়ে ১১টার পরিবর্তে ১৫ মিনিট এগিয়ে এসে ১১টা ১৫ মিনিটে যাত্রা শুরু করবে।

চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার পথে চারটি ট্রেনের সময় পরিবর্তন হচ্ছে। চট্টলা এক্সপ্রেস সকাল সাড়ে ৮টার পরিবর্তে আড়াই ঘণ্টা এগিয়ে ৬টায় ছাড়া হবে। সুবর্ণ এক্সপ্রেস বিকাল ৫টার পরিবর্তে ছাড়বে ৪টা ৪৫ মিনিটে।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার দিকে সোনার বাংলা এক্সপ্রেস সকাল ৭টার পরিবর্তে সাড়ে ৭টায় ছাড়বে। আর তূর্ণা এক্সপ্রেস ছাড়বে রাত ১১টার পরিবর্তে সাড়ে ১১টার। দুটি ট্রেনই আগের চেয়ে আধা ঘণ্টা পরে ছাড়বে।

ঢাকা থেকে সিলেটের দিকে চারটি ট্রেনের মধ্যে তিনটিরই সময় পরিবর্তন হচ্ছে। পারাবত এক্সপ্রেস সকাল ৬টা ২০ মিনিটের পরিবর্তে ঢাকা ছাড়বে সাড়ে ৬টায়। আর উপবন এক্সপ্রেস রাত সাড়ে ৮টার পরিবর্তে ছাড়বে রাত ১০টায়।

দুই ট্রেনের যাত্রা পিছিয়ে গেলেও কালনী এক্সপ্রেস ছাড়ার সময় পাঁচ মিনিট এগিয়ে আনা হয়েছে। বিকাল ৩টার পরিবর্তে ট্রেনটি ছাড়া হবে ২টা ৫৫ মিনিটে।

সিলেট থেকে ঢাকার দিকে উপবন এক্সপ্রেস ও পারাবত এক্সপ্রেস ছাড়ার সময় কিছুটা এগিয়ে আনা হয়েছে। বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটের পরিবর্তে পারাবত ছাড়বে সাড়ে ৩টায়। আর উপবনের সময় রাত সাড়ে ১১টা থেকে এগিয়ে আনা হয়েছে ১১টায়।

অন্যদিকে, জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস বেলা ১১টা ১৫ মিনিটের পরিবর্তে সিলেট ছাড়বে দুপুর ১২টায়। ট্রেনটির যাত্রার সময় ৪৫ মিনিট পেছানো হয়েছে।

ঢাকা-কিশোরগঞ্জ রুটে তিনটি ট্রেনের শিডিউলে বড় কোনো পরিবর্তন নেই। আগের সময়েই ঢাকা ত্যাগ করবে এগারসিন্দুর পার্বতী ও এগারসিন্দুর গোধূলি।

এই গন্তব্যে কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ছাড়ার সময় ১০টা ৪৫ থেকে ১৫ মিনিট এগিয়ে এনে সাড়ে ১০টা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জ থেকে আগের সময়েই ট্রেনগুলো ঢাকার দিকে যাত্রা শুরু করবে।

ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ হয়ে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত দুই ট্রেন এবং দেওয়ানগঞ্জ বাজার পর্যন্ত দুই ট্রেনের সূচিতে কোনো পরিবর্তন নেই।

ময়মনসিংহ হয়ে তারাকান্দি পর্যন্ত অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস ও যমুনা এক্সপ্রেস ছাড়া হবে আগের সময়েই। তবে তারাকান্দি থেকে ঢাকার দিকে অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস বিকাল ৫টা ২০ মিনিটের পরিবর্তে সাড়ে ৬টায় ছাড়বে।

এদিকে, ঢাকা থেকে টাঙ্গাইলের ভুয়াপুরের মধ্যে চলাচল করা জামালপুর এক্সপ্রেসের সূচি আসা-যাওয়া দুই পথেই এগিয়ে আনা হয়েছে। ঢাকা থেকে ট্রেনটি সকাল সাড়ে ১০টার পরিবর্তে ১০টায় ছেড়ে যাবে।

আবার ভুয়াপুর থেকে বিকাল ৫টা ১০ মিনিটের পরিবর্তে ছাড়বে সাড়ে ৪টায়। ঢাকা থেকে নোয়াখালীর দিকে উপকূল এক্সপ্রেস ছাড়ার সময় ১০ মিনিট এগিয়ে আনা হয়েছে। ট্রেনটি বিকাল ৩টা ২০ মিনিটের পরিবর্তে ৩টা ১০ মিনিটে ঢাকা ছাড়বে। তবে নোয়াখালী থেকে আগের মতোই ট্রেনটি সকাল ৬টায় ছেড়ে আসবে।

পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেনগুলোর মধ্যে ঢাকা থেকে রাজশাহীর দিকে আগের সময়েই ছাড়বে ধূমকেতু এক্সপ্রেস। তবে সিল্কসিটি এক্সপ্রেস বেলা ২টা ৪৫ মিনিটের পরিবর্তে ২টা ৪০ মিনিটে ও পদ্মা এক্সপ্রেস রাত ১১টার পরিবর্তে ১০টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা ছাড়বে। ফেরার পথে রাজশাহীর আগের তিন ট্রেনই নির্ধারিত সময়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছাড়বে।

পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা-রাজশাহী রুটে নতুন যোগ হওয়া মধুমতী এক্সপ্রেস বেলা ৩টায় ঢাকা ত্যাগ করবে। রাজশাহী থেকে ছাড়বে সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে।

তবে ঢাকা থেকে রাজশাহী হয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মধ্যে চলাচল করা বনলতা এক্সপ্রেসের সময়সূচিতে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না।

(ঢাকাটাইমস/০১ডিসেম্বর/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :