১৪ দলের যারা বিজয়ী হতে পারবে আ.লীগ তাদের ছাড় দেবে: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৪:৫১ | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:১১
ফাইল ফটো

কেন্দ্রীয় ১৪ দল কিছু আসন দাবি করতে পারে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘যারা বিজয়ী হতে পারবে তাদেরকে মনোনয়ন দিতে আওয়ামী লীগের আপত্তি নেই, তাদেরকে ছাড় দেওয়া হবে।’

সোমবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অনির্বাচিতরা এসে সরকার গঠন করবে এটা স্বাভাবিক বিষয় নয়। যারা এসব ভাবছে তাদের আশা কোনোদিন পূরণ হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আন্দোলনে ব্যর্থ হলে নির্বাচনেও হারবে এটাই বাংলাদেশের রাজনীতিতে অবধারিত। যারা ভোটাধিকারে বাধা দেবে ভোটাররাই তাদের বাধা দেবে। দেশের মানুষ এখন তা আর সহ্য করবে না। বিএনপি বাধা দিয়ে নির্বাচন বন্ধ করতে পারবে না।’

বিদেশিদের হস্তক্ষেপের কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিদেশিরা বুঝতে পেরেছে বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হবে। জনগণ এই নির্বাচনে অংশ নিতে উৎসুক হয়ে আছে। নির্বাচন নিয়ে দেশের মধ্যে কোনো ধরনের সহিংসতা নেই।’

তিনি বলেন, ‘১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ ঘিরে কোনো সংঘাতের আশঙ্কা করছি না। নির্বাচন ঘিরে জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে, ভোটার উপস্থিতি নিয়ে আওয়ামী লীগ চিন্তিত নয়।’

বিএনপির নাশকতার কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সরকার উদ্যোগ নিয়েছে বলেও জানান তিনি।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় কোনো ক্ষতি হবে না আওয়ামী লীগের। বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলেও আরও ২৯টি দল আছে। সরকারের বাইরেও অনেক দল নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। শক্তিশালী বিরোধী দল নির্ভর করে শক্তিশালী গণতন্ত্রের ওপর।’

কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ‘১৪ দলের পক্ষ থেকে কিছু আসন দাবি করতে পারে। যারা বিজয়ী হতে পারবে তাদের মনোনয়ন দিতে আপত্তি নেই আওয়ামী লীগের। যোগ্য প্রার্থীকে ছাড় দেওয়া হবে।’

‘আওয়ামী লীগের মনোনীত যেসব প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে, তারা চাইলে আপিল করতে পারবে। আওয়ামী লীগ কোনো হস্তক্ষেপ করবে না’-বলেন দলের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচিত সরকার নির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবে এটাই প্রতিজ্ঞা।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি সিদ্ধান্ত নিয়েই এ নির্বাচন বয়কট করছে। তারা স্বেচ্ছায় নির্বাচনে আসছে না। তাদের নির্বাচনে অংশ নিতে জোর করব কেন? আর আওয়ামী লীগ সংবিধান মেনেই নির্বাচনে এসেছে।’

‘১০ ডিসেম্বর বিএনপির সঙ্গে পাল্টাপাল্টি কোনো সমাবেশ নয়’ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘১০ ডিসেম্বর মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে সমাবেশ করতে নির্বাচন কমিশনের কাছে চিঠি দিয়েছি। মানবাধিকার দিবস পালন করা গণতান্ত্রিক অধিকার।’

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

এর আগে রাজধানীর গুলিস্তানে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার জ্যেষ্ঠ পুত্র এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সদস্য সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দীপুর জানাজায় অংশ নেন ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতারা। পরে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে দীপুর কফিনে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/৪ডিসেম্বর/জেএ/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

রোজার আগে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানো অসহনীয়: সংসদে চুন্নু

বাকস্বাধীনতা না থাকলে ভাষা থেকেও লাভ হয় না: ড. আনোয়ারউল্লাহ চৌধুরী

রাজনীতিতে হতাশার জায়গা নেই: নোমান

আ.লীগ সরকার উন্নয়নের জিকির তুলে বাকস্বাধীনতা হরণ করেছে: মাসুদ

রকেট গতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়েই চলছে: রিজভী

বিএনপি যুক্তরাষ্ট্রের কাছে যা চেয়েছিল তা পায়নি: ওবায়দুল কাদের 

পল্লবীর ঝিলপাড় বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে বিএনপি 

অর্থনীতির সংকটে দ্রব্যমূল্য বাড়া স্বাভাবিক, না খাইয়ে তো রাখিনি: ওবায়দুল কাদের 

‘যা কিছু হারায় গিন্নি বলেন কেস্টা বেটাই চোর’

কল্যাণ পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিবের পদত্যাগ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :