একগুচ্ছ ভালোবাসার কবিতা...

অনলাইন ডেস্ক
| আপডেট : ২১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৫:৩০ | প্রকাশিত : ২১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৫:১৩

ভাগশেষ

মোসলিমা খাতুন

প্রতিটি প্রাণী নিজস্ব আধিপত্য বিস্তারে ব্যস্ত

প্রেম প্রকৃতি সত্যবোধ সংগত আধার-ব্যাপ্ত

কাম-ক্রোধ-লোভ-মোহ-মদ-মাৎসর্যে ক্ষত

পূর্ণতা তার ক্ষিতি-অপ-তেজ-মরূৎ ব্যোমে

আপন স্বরূপে দর্প তার আপাদমস্তক

কৌশলী অপচ্ছায়া নখদে যখন করে ভর

সে তখন তেজি ওজস্বী হিংস্র ক্রুশবিদ্ধকারী

দয়াদ্র হলে ব্যতিক্রম প্রাণীকুলে ভিন্ন

বৈপরীত্যে অধিবাস আবাদি-অনাবাদি

ভাঙা-গড়া দুঃখ-আনন্দ দৃশ্য-স্বপ্ন দূর নিকট

জাগ্রত ধ্যানমগ্ন বিলাস করতলে যাপিত,

ঊর্ধমুখী একটি সুপ্রভাত প্রাণীদের থেকে

পৃথক এক প্রাণী ক্ষমতা-দাপট লোভ দৌড়

সীমাভেদ ভিনগ্রহ স্তুপ তৃষ্ণা ক্ষণকালিক

অস্তিত্ব অসাঢ় পরমেশ্বর হয়ে যায় মানুষ,

হায়! ভাগশেষ... যখন মৃত্যু! মৃত্যু! মৃত্যু!

১৭ই ডিসেম্বর, ২০২৩, চাঁদেরহাট, সখিপুর, টাঙ্গাইল

আমি ভালো আছি তো?

আইভি রহমান

বহুদিন ধরেই চাইছি আমার জ্বর আসুক-

আমাকে কাঁপিয়ে-কাঁদিয়ে ঝাঁপিয়ে রাগান্বিত উত্তপ্ত জ্বর এসে

ঘিরে ধরুক আমার আমিসমগ্রকে।

আমার ভেতর-বাহির উত্তাপিত হতে থাকুক প্রবল জ্বরঘোরে।

বহুদিন ধরেই ডাকছি দু’হাত শূন্যে মেলে।

খুব শান্তির কিছু ঘুম আসুক দু’চোখের পাতায় আমার।

ক্লান্ত চোখের তারা নিষ্প্রভ ম্রিয়মাণ তবুও আলো জ্বেলে

ঠায় অপেক্ষা করে ঘন কালো রাতের তরে।

বেশ কিছুদিন যাবৎ চাইছি একটু জিরুতে।

দৌড়তে দৌড়তে ক্লান্ত পায়ের পাতা

আমার মুখের দিকে চেয়ে থাকে অপলক।

আমার বিরাম নেই।

নিজেরই-যে জানা নেই আমার চলার শেষ কোন অজানায়!

বেশ কিছুদিন যাবৎ ভাবছি নিজের দিকে একটু তাকাবো।

কতদিন প্রাণভরে সাজাইনি নিজেকে।

শুধু বয়ে চলেছি প্রাণহীন খোলসে সাজানো

এক অবয়ব ফরমাইয়েসি আনুগত্যে।

কতদিন চোখের বারান্দা সাজেনি তুমুল কাজলবন্যায়।

ঠোঁটের ঘাটে নামেনি কতদিন উল্কি মাখা পালকি আলপনা ছায়ায়-

আজ কিছুদিন ধরেই ভাবছি এসব ছাইপাশ।

ফের চলছি সামনের পানে আবার ফেলে দীর্ঘশ্বাস।

হায়... আমি ভালো আছি তো!

২০শে ডিসেম্বর, ২০২৩, ক্যানবেরা, অস্ট্রেলিয়া

পোশাকি বেদনা

সাইমুম সোহরাব

বেদনাকে দেখছি ক'দিন যাবৎ

ঘাম শুকানো নুনের আস্তরণ বৎ

নিয়ম করে চাটছে তারে কাল-ষাঁড়ে

একটু প্রবোধ দেয় সাধ্য কার তারে।

পেপার মিলের মণ্ডলাকার বেদনা কে দেয় এতো ঘষে জ্বলবার মন্ত্রণা!

হাঁড়িকাঠে ঢুকিয়ে মাথা কে কাঁদে? বেদনাকে তাই মেনেছি সানন্দে।

ভালোবাসার পোশাকপরা বেদনা খাচ্ছি-দাচ্ছি ঘুমাচ্ছি বেশ, মন্দ না...।

দূর নীলিমায় এক উড়ন্ত সারস

আনিসুর রহমান খান

বকেরা উড়ে যায় ওই দূর দিগন্তে হয়তো নিঃশ্বাস ভারি করে-

আমার ডানা নেই; নিঃশ্বাসে প্রবাহিত হয় একটি নামের উচ্চারিত ধ্বনি-

সে শুধুই দীপান্বিতা... আর দীপান্বিতা।

তখন সাইবার যুদ্ধের মতো অস্থির হতে থাকি

ঝিমিয়ে পড়তে থাকে স্বপ্নবোনা ভবিষ্যৎ সংসার-

আমিও কি বকদের মতো ছন্নছাড়া নির্বাক হয়ে যাবো?

পর্বতের মতো শক্তিমান পুরুষ বিশ্বাস-ভক্তি এবং

ভালোবাসার জয়ধ্বনি যার আমূল সম্পদ-

কালবৈশাখী ঝড়েও যাকে নুইয়ে দিতে পারে না!

সে আজ রোদ্দুরহীন টলে যাওয়া লাউয়ের ডগার মতো মুখ থুবড়ে আছে।

কথা বলতে চাই; কথা হারিয়ে বাক্প্রতিবন্ধী হয়ে ওঠছি ক্রমাগত...

ক্রমশ উন্মাদ হয়ে ওঠে মস্তিষ্কের সমস্ত সচল নিউরন।

উন্মাদেরও ভাষা থাকে, ভাব থাকে

আমি ভাবলেশহীন করপোরেট কীট-

যেন তুমিহীন আর ভূমিহীন আমার সিদ্ধান্তের তাবৎ জগৎ-সংসার।

৩১শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩, কোনাবাড়ী, গাজীপুর

সংবাদটি শেয়ার করুন

ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :