যুক্তরাষ্ট্রেও জনপ্রিয়তার শীর্ষে লিওনেল মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:৫৮

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবল। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে বিষয়টা ভিন্ন। সেখানে ফুটবল অতটা জনপ্রিয় নয়। ফলে এই খেলার খেলোয়াড়রাও জনপ্রিয়তায় অনেক পিছিয়ে। এমনকি ডেভিড ব্যাকহাম, জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচরাও পারেননি চিত্রটা বদলাতে। তবে লিওনেল মেসি পেরেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে ক্রীড়াবিদদের তালিকায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছেন লিওনেল মেসি। শুধু তাই নয়, দেশটির ইতিহাসে প্রথম কোনো ফুটবলার হিসেবে সব অ্যাথলেটকে ছাড়িয়ে গেছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

স্পোর্টস রিসার্চ পোলিং কোম্পানি ‘এসএসআরএস’ এর ২০২৩ সালের জরিপে এমন তথ্য উঠে এসেছে। সংস্থাটির গত ৩০ বছরের ইতিহাসে প্রথম কোনো ফুটবলার হিসেবে ইন্টার মায়ামি তারকা মেসি জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থান দখল করেছেন।

‘এসএসআরএস’ এর জরিপে এর আগে জনপ্রিয় অ্যাথলেট হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে রাজত্ব ছিল বাস্কেটবল খেলোয়াড়দের। ১৯৯৫ সাল থেকে দীর্ঘ সময় এ তালিকায় ছিলেন বাস্কেটবল কিংবদন্তি মাইকেল জর্ডান। এছাড়া এ বিভাগের কোবি ব্রায়ান্ট, স্টেফ কারি, লেব্রন জেমসরা বিভিন্ন সময়ে শীর্ষে ছিলেন।

বাস্কেটবলের বাইরে গলফ তারকা টাইগার উড ও আমেরিকান ফুটবল খেলোয়াড় পেইটন ম্যানিং ও টম ব্রাডিও বিভিন্ন সময় জনপ্রিয় অ্যাথলেট ছিলেন। তবে প্রথমবার কোনো ফুটবলার (যুক্তরাষ্ট্রে সকার খেলোয়াড়) হিসেবে এ জায়গা দখল করেছেন মেসি।

ইউরোপ অধ্যায় শেষ করে গত বছর মেজর লিগ সকারে (এমএলএস) যোগ দেয়ার পর ইন্টার মায়ামিকে প্রথমবার লিগ কাপ জয়ে সহযোগিতা করেছিলেন মেসি। এছাড়া তুলেছিলেন ইউএস ওপেন কাপের ফাইনালেও। যা তাকে নিয়ে গেছে ২০২৩ সালের জনপ্রিয় অ্যাথলেটের শীর্ষে।

যুক্তরাষ্ট্রে ফুটবল কখনোই অত জনপ্রিয় ছিল না। তবে মেসি যোগ দেওয়ার পর দৃশ্যপট বদলে গেছে। ধীরে ধীরে ফুটবলের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। এর কারণ অবশ্যই মেসি। তার মতো জীবন্ত কিংবদন্তিকে খেলতে দেখার জন্যই হাজারো মানুষ স্টেডিয়ামে ভিড় করে, টিকিট-জার্সি বিক্রি হয় রেকর্ড দামে। সম্প্রচারেও বিশেষ গুরুত্ব পায় ইন্টার মায়ামির খেলা। মেসির পর সেখান পাড়ি জমিয়েছেন লুইস সুয়ারেস, সের্হিও রবের্তো ও সের্হিও বুসকেতসের মতো সাবেক বার্সা তারকারাও। এতে এমএলএসের জৌলুশও বেড়েছে।

মেসির আগমনে ইন্টার মায়ামিও জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে গেছে। গত বছরের প্রথম ও দ্বিতীয় ভাগে ক্লাবটির জনপ্রিয়তা বেড়েছে পাঁচ গুণ। মেজর লিগ সকারের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্লাব এখন সাবেক ইংলিশ ফুটবল তারকা ডেভিড ব্যাকহামের মালিকানাধীন এই ক্লাব। যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাবের তালিকাতেও চতুর্থ স্থানে আছে তারা (বাকি তিন ক্লাব- বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড)।

এদিকে তার ক্লাব মায়ামিও এমএলএসের জনপ্রিয় ক্লাবের খ্যাতি অর্জন করেছে। ক্লাবটি পেছনে ফেলেছে লা গ্যালাক্সিকে।

গত মৌসুমে প্লে অফে জায়গা করে নিতে ব্যর্থ হওয়া মায়ামি এবার রিয়াল সল্ট লেককে হারিয়ে এমএলএসের নতুন মৌসুম শুরু করেছে। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি এমএলএসের জনপ্রিয়তার তকমা গায়ে জড়িয়ে লা গ্যালাক্সির বিপক্ষে মাঠে নামবে ডেভিড বেকহামের ক্লাবটি।

(ঢাকাটাইমস/২৪ ফেব্রুয়ারি/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :