বিদায়ী উপাচার্যের অনিয়ম-দুর্নীতির প্রশ্নে যা বললেন ডা. দীন মোহাম্মদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২৪, ১৬:১১ | প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০২৪, ১৬:০০

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন প্রখ্যাত চক্ষু বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডা. মিল্টন হলে উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণ শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের নানা প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন তিনি।

এ সময় সাংবাদিকরা বিদায়ী উপাচার্য শারফুদ্দিন আহমেদের মেয়াদকালে হওয়া অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে পদক্ষেপের বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. দীন মোহাম্মদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে কি কোনো ভালো লোক নেই? যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, আমি তাদের নিয়েই কাজ করতে চাই। আমি মনে করি, প্রত্যেকের মধ্যে ভালো সত্ত্বা আছে।

দীন মোহাম্মদ বলেন, আপনারা জানেন বিশ্ববিদ্যালয় একটি সিন্ডিকেট কমিটি আছে, ঊর্ধ্বতন চিকিৎসক-কর্মকর্তারা আছেন, সবার সঙ্গে কথা বলেই এটি করতে হবে। আমি তো কেবল দায়িত্ব নিয়েছি। আমাকে আগে বুঝতে হবে, দেখতে হবে।

তিনি বলেন, আমি এখানে আসার আগেই আমার কাছে অনেকে বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন দিচ্ছিল। প্রত্যেকেই একজন আরেকজনকে দোষারোপ করছিল। তার মানে কি এখানে কোনো ভালো লোক নেই? তাহলে কেন সবাই সবার বিরুদ্ধে বলে আসছিলো? তারপর আমি বললাম, তোমরা যাদের নিয়ে আমার কাছে অভিযোগ করে আসছো, তাদের নিয়েই আমি কাজ শুরু করব।

উপাচার্য আরও বলেন, আমি জানি প্রত্যেক মানুষই ভালো। প্রত্যেক মানুষের ভেতরেই একটি ভালো সত্ত্বা রয়েছে, আমি সেটাকে আবিষ্কার করব। আমার সঙ্গে কেউ কাজ করলে সে কোনোদিনই খারাপ হবে না ইনশাআল্লাহ।

দীন মোহাম্মদ বলেন, আমি আগেও বলেছি যে আমি সুনির্দিষ্ট কোনো গ্রুপের লোক নই। আমি আপনাদের সবার। আমার পরিচয় আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের লোক। আমি এদেশের সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করার লোক। আমি কোনো ধরনের গ্রুপে যেতে চাই না। এ বয়সে আমার কোনো গ্রুপিংয়ের প্রয়োজন নেই। আমাকে যে আস্থা এবং বিশ্বাস নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা এখানে পাঠিয়েছেন, আমি সেটাকে মূল্যায়ন করতে চাই।

তিনি আরও বলেন, ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ আমার বন্ধু। তিনি আমাকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে বিদায় নিয়েছেন। আমি শারফুদ্দিন আহমেদকে শুভেচ্ছা জানাই। আমি চেয়ারে না বসেই জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে সম্মান জানাই। আমি মনে করি, আমার এজেন্ডা একটাই। বিশ্ববিদ্যালয়টিকে বিশ্বের অন্যতম একটি প্রতিষ্ঠানে পরিণত করব।

উদ্বোধনের দীর্ঘদিন পরও সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল চালু না হওয়া প্রসঙ্গে নতুন উপাচার্য বলেন, সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল চালু করা একটা বড় চ্যালেঞ্জ। আমি অলরেডি স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সচিবের সঙ্গে কথা বলেছি। এই বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে আমার দায়বদ্ধতা আছে। আমি বিদেশ থেকে অভিজ্ঞ চিকিৎসক-ট্রেইনারদেন নিয়ে এসে আমাদের চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করব। আশা করি সেবায় প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের অন্যতম জায়গায় অবস্থান করবে।

(ঢাকাটাইমস/২৮মার্চ/টিআই/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :