অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে আফগান রূপকথা লিখলো রশিদ-নবীরা

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৩ জুন ২০২৪, ১০:১৬ | প্রকাশিত : ২৩ জুন ২০২৪, ১০:০৯

আরও একবার নিজেদের সামর্থ্যের জানান দিলো আফগানিস্তান। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপেই নামতে পারত আফগানিস্তানের রূপকথার এমন রাত। সেদিন মুম্বাইয়ের লাল পিচে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল খেলেছিলেন ওয়ানডে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ইনিংসটি। আজও সেই ম্যাক্সওয়েল হয়ে উঠেছিলেন দেয়াল। ৪১ বলে ৫৯ রান করে অস্ট্রেলিয়াকে জয়ের কক্ষপথেই রেখেছিলেন ম্যাক্সওয়েল। তাকে ফিরিয়েছিলেন গুলবাদিন নাইব। আফগানিস্তানের জয় তখন থেকেই হাতের মুঠোয়।

১৫তম ওভারের পর থেকেই একটি করে উইকেটের পতন হয়েছে। আসেনি কোনো বাউন্ডারি। হাতের বাইরে থাকা ম্যাচটা আফগানিস্তান নিজেদের কাছে নিয়ে এসেছে সেখানেই। নিউজিল্যান্ডকে বিদায় করে সুপার এইটে এসেছিল আফগানরা। বিশ্বকাপের আফগান জয়যাত্রার গল্পে ওই উপাখ্যানই হয়ত যথেষ্ট ছিল। কিন্তু আফগান কাবুলিওয়ালাদের ঝুলিতে যেন জমা ছিল আরেক রূপকথা। ২১ রানের জয়ে সেই গল্পের আরেক উপাখ্যান লিখলেন গুলবাদিন নাইব, রশিদ খান, রহমানউল্লাহ গুরবাজরা।

সেন্ট ভিনসেন্টে রোববার (২৩ জুন) অজিদের ২১ রানে হারিয়েছে আফগানরা। ১৪৯ রান তাড়া করতে নেমে ১৯.২ ওভারে সব কটি উইকেট হারিয়ে ১২৭ রানে থেমেছে মিচেল মার্শের দল। ২০ রান খরচায় ৪ উইকেট নিয়ে বল হাতে আফগানদের জয়ের অন্যতম নায়ক গুলাবদিন নাইব। ৩ উইকেট নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন নাভিন উল হক। রান তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। দলের খাতায় ৩২ রান যোগ হতেই সাজঘরে ফেরেন তিন টপ অর্ডার ট্রাভিস হেড (০), ডেভিড ওয়ার্নার (৩) ও মিচেল মার্শ। তবে এদিন ম্যাক্সওয়েল যেভাবে ক্রিজ আঁকড়ে ধরেছিলেন তাতে মনে হচ্ছিল ওয়ানডে বিশ্বকাপের পুনরাবৃত্তি হবে। গত বছর ভারত বিশ্বকাপের ওই ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৯১ রানে ৭ উইকেট হারানো দলকে একাই লড়ে ২৯২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে দিয়েছিলেন ম্যাক্সওয়েল। খেলেছিলেন ২০১ রানের অপরাজিত বীরত্বসূচক ইনিংস।

এদিনও দারুণ ইনিংস খেলেছেন তিনি। তবে তাকে ক্রিজে আঁকড়ে রাখার সুযোগ দেননি গুলাবদিন নাইব। ৪১ বলে ৬ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৯ রান করে আউট হন তিনি। দলের সংগ্রহ তখন ১৪.৪ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০৬ রান। তার বিদায়ের পর আর কেউই ম্যাচের হাল ধরতে পারেননি।

এর আগে আফগানদের জয়ের জন্য লড়াকু পুঁজি এনে দিয়েছেন দুই ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও ইব্রাহিম জাদরান। দুজনের ওপেনিং জুটিতে ১১৮ রান পেয়েছিল আফগানরা। তাদের বিদায়ের পর অবশ্য সংগ্রহটা ১৪৮ রানের বেশি এগোয়নি। ৪৯ বলে ৪ ছক্কা ও ৪ চারের মারে ৬০ রান করেন গুরবাজ। ৪৮ বলে ৬ চারের মারে ৫১ রান করেন ইব্রাহিম। এদিন বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথম বোলার হিসেবে দ্বিতীয় হ্যাটট্রিকের দেখা পান অজি পেসার প্যাট কামিন্স। আগের ম্যাচেও বাংলাদেশের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক পেয়েছিলেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/২৩ জুন/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :