ইচ্ছাকৃত হলুদ কার্ড, দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হতে পারেন রামোস

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:০০ | প্রকাশিত : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:৪৬

আয়াক্সের বিপক্ষে বুধবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ইচ্ছা করে হলুদ কার্ড দেখেন সার্জিও রামোস। যেটি ম্যাচের পর সংবাদ-সম্মেলনে স্বীকারও করে নিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক। 

রামোসের নামের পাশে তিনটি হলুদা কার্ড ছিল। আরেকটি পেলে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ হতেন। রিয়াল ডিফেন্ডার চেয়েছিলেন শেষ ষোলোর ফিরতি লেগেই নিষেধাজ্ঞার ঝামেলাটা চুকিয়ে ফেলতে। যাতে কোয়ার্টার ফাইনালে কোনো দুশ্চিন্তা না থাকে।

১-১ সমতায় চলতে থাকা ম্যাচের ৮৭ মিনিটে গোল করে রিয়ালের জয় নিশ্চিত করেন মার্কো আসেনসিও। রামোস যেন এই গোলের অপেক্ষাতেই ছিলেন। দুই মিনিট বাদেই আয়াক্সের ক্যাসপার ডোলবার্গকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন তিনি। ফলে নিজেদের ডেরায় ফিরতি লেগে খেলতে পারবেন না তিনি। তাতে কী? প্রতিপক্ষের মাঠে ২-১ ব্যবধানের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের পথে তো এগিয়ে রিয়ালই। দ্বিতীয় লেগে রামোস না খেললেও খুব একটা বেগ পেতে হবে না লস-ব্লাঙ্কোসদের।

কিন্তু শেষ ষোলোর গণ্ডি পেরোনোর পর কোয়ার্টার ফাইনালে আরও শক্ত প্রতিপক্ষকে মোকাবেলা করতে হবে রিয়ালকে। তখন রামোসের মত ডিফেন্ডারকে লাগবে তাদের। দলের কথা ভেবেই ইচ্ছাকৃত হলুদ কার্ড দেখলেন রামোস। কিন্তু এটা করতে গিয়ে তিনি আবার বিপদ ডেকে আনলেন না তো? 

উয়েফার আইন বলছে, কোনো উদ্দেশ্য হাসিল করার লক্ষ্যে কেউ ইচ্ছা করে হলদু কার্ড দেখলে তাকে দুই ম্যাচ কিংবা একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত নিষিদ্ধ করতে পারে সংস্থাটি। রামোসের শাস্তি কি তাহলে বাড়ছে?

(ঢাকাটাইমস/১৪ ফেব্রুয়ারি/এবিএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :