বইমেলায় সাড়া ফেলেছে ‘বিস্ময়বালক’

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
| আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৫ | প্রকাশিত : ০১ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৪

হামমাদ সাফি। বাড়ি পাকিস্তান। ১১ বছর বয়সী এক ‘বিস্ময়বালক’। বুদ্ধিমান কিশোর। যে স্বপ্ন দেখে একটি শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর। ইতিমধ্যে তার বিস্ময়কর-ব্যতিক্রমী দৃষ্টিভঙ্গি আর প্রতিভা অনেককে বিস্মিত করেছে। বয়সে সর্বকনিষ্ঠতম শিক্ষক, ফ্রিল্যান্সার, মোটিভেশনাল স্পিকার, টিভি অ্যাংকর এবং লেখক হওয়ার সুনাম অর্জন করে ফেলেছে। পাশাপাশি নবিযুগ, খুলাফায়ে রাশেদার খেলাফতকাল, উপমহাদেশের ইতিহাস, বিশেষত ইসলামের ইতিহাসের সফল সিপাহসালারদের জীবন-বৃত্তান্ত ইত্যাদি নিয়েও নিয়মিত পড়াশোনা করছে সে।

ছোট্ট হামমাদ এখনও সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। তার পরিপূর্ণ অভিভাবকত্ব এখন তার শিক্ষক ও পরামর্শদাতাদের হাতে। সার্বক্ষণিক তাদের পর্যবেক্ষণে রয়েছে সে। যাদের হাত ধরেই হামমাদ আজ ‘বিস্ময়বালক’-এর আসনে সমাসীন।

হামমাদ সাফি আল্লামা ইকবালের চিন্তা-চেতনা ও দর্শনে প্রভাবিত এবং সেগুলো নিজের মধ্যে লালন করে। সে যখন লেকচার দেয়, ছোট-বড়, অধ্যক্ষ প্রফেসর সবশ্রেণির মানুষ শুধু অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকে তার দিকে। হামমাদ বলে, ‘আমি এমন একটি শিক্ষাব্যবস্থা চাই, যা শিক্ষার্থীদের শুধু শিক্ষাই দেবে না; নীতি-নৈতিকতা এবং আচরণগত আদর্শও শেখাবে। এমন একটি শিক্ষাব্যবস্থা, যেখানের ছাত্ররা ব্যর্থতা কিংবা পুরস্কারের লোভে পড়বে না; তারা একজন ভালো মানুষ হয়ে ওঠার উদ্দেশ্যে অধ্যয়ন করবে। ভালো মানুষ তো সে, যে তার কাজের মাধ্যমে এই দুনিয়াতে ভালো কিছু সংকলন করে। ভালো কিছু সৃষ্টি করে। মানুষকে উপকৃত করে। এবং অন্যদেরকে তারচেয়েও ভালো কিছু করার জন্য উৎসাহ দেয়—শান্তি, সহানুভূতি এবং মানবতাবিশ্বাস।’

তার বক্তৃতা শুধু ইংরেজি বা ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য সীমাবদ্ধ নয়। সে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং সঙ্গে সঙ্গে আল্লামা ইকবালের একজন ভক্ত। যে আল্লামা ইকবাল তার রহস্যময় কবিতার মাধ্যমে এ উপমহাদেশে বিপ্লব নিয়ে এসেছিলেন। হামমাদ সাফি; যে বলে—যেকোনো দেশ অন্য যেকোনো দেশের তুলনায় ভালো। এটি সকলের জন্য একটি প্রকৃত অনুপ্রেরণা। সে চায় এমন একটি শিক্ষাপদ্ধতি, যা কেবল স্নাতকোত্তর করেই উচ্চতর শিক্ষিত হতে সাহায্য করবে। সে আরও বলে—আমার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো, আল্লামা ইকবালের দর্শন ও মতবাদকে পুনরুজ্জীবিত করা; শান্তিপূর্ণ পরিবেশে প্রত্যেকের জন্য শিক্ষার সমান সুযোগ নিশ্চিত করা; শিক্ষার্থীদের জন্য আধুনিক বিশ্বের সাথে সংযোগ স্থাপন করার জন্য সর্বশেষ প্রযুক্তির প্রবেশ নিশ্চিত করা।

হামমাদ এখন নিয়মিত পাকিস্তানের কয়েকটি ইউনিভারসিটিতে মোটিভেশনাল লেকচার দিচ্ছে । এর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য হলো—শহিদ বেনজির ভুট্টো মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়; সিইসিওএস বিশ্ববিদ্যালয়, পেশোয়ার; পেশোয়ার বিশ্ববিদ্যালয়; ইসলামিয়া কলেজ; রাজনৈতিক এজেন্ট অফিস মমন্ড এজেন্সি; কথ্য ইংরেজি এবং কমপিউটার বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয় এছাড়া ফেইসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ বিভিন্ন অনলাইন মাধ্যমে তার জীবনমুখী বক্তৃতার ফিরিস্তি দিয়ে শেষ করা কঠিন।

বাংলাদেশের তরুণ সাংবাদিক ও প্রতিভাবান লেখক নাজমুল ইসলাম কাসিমী হামমাদ সাফি নামের বিস্ময়বালককে নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করে তৈরি করেছেন ‘বিস্ময়বালক’ । বইটি প্রকাশ করেছে ‘কালান্তর প্রকাশনী’। বইমেলা পরিবেশক হিসেবে আছে ‘মাতৃভাষা প্রকাশন’—স্টল নং ৪৭০। এ ছাড়াও অনলাইন পরিবেশক হিসেবে রয়েছে রকমারি, ওয়াফি লাইফ, সিজদা ডটকম। বইটি প্রকাশ হওয়ার পর খুব দ্রুত সময়ে সর্বমহলে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

(ঢাকাটাইমস/০১মার্চ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :