বোমা মেরে পালানোর সময় ‘গণপিটুনিতে’ যুবক নিহত

যশোর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৯, ১০:৩০

এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে যশোরে বোমা মেরে পালানোর সময় গণপিটুনিতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তার নাম সানি হোসেন। আহত হয়েছেন আনন্দ নামে ২৪ বছর বয়সী আরেক যুবক। তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে শহরের শংকরপুর বাস টার্মিনালের বিআরটিসি কাউন্টারের পাশে এ ঘটনা ঘটে৷

নিহত সানি হোসেন শহরের শংকরপুর এলাকার মশিউর রহমানের ছেলে৷ আহত আনন্দ একই এলাকার অশোকের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শংকরপুর বাস টার্মিনালে চাঁদা তোলা ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে রাত সাতটার দিকে সানি ও আনন্দসহ কয়েকজন শংকরপুর এলাকার কাউন্সিলর মস্তফার অফিসের সামনে যায়। সেখানে গিয়ে তারা একই এলাকার ফারুক মিয়ার ছেলে নয়ন হোসেনকে বোমা মেরে আহত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয় লোকজন সানি ও আনন্দকে শংকরপুর বাস টার্মিনাল এলাকায় ধরে গণপিটুনি দেয়৷

খবর পেয়ে পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপূর্ব হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শংকরপুর বাস টার্মিনালে বাসের কাউন্টারের চাঁদাবাজি নিয়ে এই ঘটনা ঘটেছে৷ তিনি আরও বলেন, নয়নকে বোমা মারার কারণেই বাসের চালক, তাদের সহকারীসহ স্থানীয় লোকজন দুজনকে গণপিটুনি দেয়। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার করা হলে মামলা নেব। তা না হলে পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করবে।

ঢাকাটাইমস/১৯জুন/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত