ঈদযাত্রায় স্বস্তি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে

মাসুদ আলম, কুমিল্লা
 | প্রকাশিত : ১০ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫৯

এবারের ঈদযাত্রায় অন্যান্য সড়কে যখন ভোগান্তির খবর পাওয়া যাচ্ছে তখন স্বস্তিতে আছেন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রীরা। এই মহাসড়কে যানজট যেমন নেই, নেই যানবাহনের বাড়তি চাপও। এজন্য কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়াই যাত্রীরা বাড়ি যাচ্ছেন।

শনিবার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার বিভিন্ন অংশে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মহাসড়কের কুমিল্লার ১০৪ কিলোমিটার এলাকায় কোথাও কোনো যানজটের দৃশ্য চোখে পড়েনি। যানবাহনের ধীরগতি এবং বাড়তি চাপও নেই। 

অতীতের কোরবানির ঈদগুলোতে মহাসড়কের এমন স্বস্তির দৃশ্য কখনো মেলেনি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা ও গোমতী সেতুর দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে দীর্ঘ যানজট তৈরি হতো। ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকা পড়ে ঈদযাত্রায় যাত্রীরা চরম ভোগান্তিতে পড়তেন। চলতি বছরের ২৫ মে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা ও গোমতী নদীর ওপর নির্মিত দ্বিতীয় সেতু চালু হওয়ার পর থেকে অবসান ঘটেছে চিরচেনা যানজটের। কম সময়ের মধ্যেই স্বস্তিতে যাত্রা করছেন যাত্রীরা।

চালকরা জানান, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া প্রান্তে মেঘনায় দ্বিতীয় মেঘনা সেতু এবং কুমিল্লা দাউদকান্দি প্রান্তে গোমতী নদীর ওপর দ্বিতীয় গোমতী সেতু চালু হওয়ার পর থেকে মহাসড়কে যানজটের দেখা মেলেনি এই পর্যন্ত। তবে সেতুর ওপর উঠতে গিয়ে কিছু ভারী যানবাহন বিকল হয়ে পড়ায় প্রায় সময় জট সৃষ্টি হয়। তবে আগের মতো দীর্ঘ যানজট তৈরি হয় না। স্বস্তিতেই মহাসড়কের চলাচল করা যাচ্ছে।

শনিবার দুপুরে ঢাকা থেকে সপরিবারে কুমিল্লায় বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা করেন আবদুল মালেক নামে এক ব্যক্তি। তিনি ঢাকা থেকে বের হয়ে এক ঘণ্টা পঞ্চাশ মিনিটের মাথায় কুমিল্লা ক্যান্টেনমেন্ট এসে পৌঁছেন। কোথাও কোনো যানজট চোখে পড়েনি বলে জানান। তার দাবি, এর আগে ঈদুল ফিতর ছাড়া ঈদে কখনো এমন স্বস্তিতে ঢাকা থেকে ঈদযাত্রা করতে পারেননি।

হিমাচল পরিবহনের চালক আবুল বাসার জানান, দ্বিতীয় মেঘনা-গোমতী সেতু চালুর পর থেকে কখনও বড় ধরনের কোনো যানজটে পারেননি। তিনি জানান, বর্তমান পরিবেশ বজায় থাকলে ঈদের আগের দিনও যাত্রীরা যানজট-যন্ত্রণা ছাড়া বাড়ি ফিরতে পারবেন।

কুমিল্লা দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন ঢাকাটাইমসকে জানান, মহাসড়কে স্বস্তিতেই ঈদযাত্রা করছেন যাত্রীরা। মেঘনা ও গোমতী সেতুর দুই পাশে কোনো যানজট বা গাড়ির ধীরগতি নেই। সেতুর দুই পাশে গাড়ির গতি স্বাভাবিক রাখতে আমাদের পুলিশ সদস্যরা কাজ করছেন।

কুমিল্লা জেলা হাইওয়ে পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম জানান, মহাসড়কে যানজটমুক্ত পরিবেশে ঈদ যাত্রায় যাত্রীরা স্বস্তিতেই বাড়ি ফিরছেন। কুমিল্লার অংশে কোথাও কোনো যানজট নেই। সড়কের মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ রয়েছে। নিয়মের বাইরে গিয়ে চালকরা বাসস্টপের পাশে সড়কে দাঁড়িয়ে যাত্রী উঠানামা করলে ব্যবস্থা নেওয়ার বিধান রয়েছে। তবে মহাসড়ক যানজট মুক্ত।

(ঢাকাটাইমস/১০আগস্ট/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :