কারখানা বন্ধের প্রতিবাদে শ্যামলীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ আগস্ট ২০১৯, ১২:৩৬

আগে থেকে নোটিশ না দিয়ে ও বকেয়া বেতন পরিশোধ না করে কারখানা বন্ধের প্রতিবাদে শ্যামলিতে সড়কে নেমে বিক্ষোভ করেছে আলিফ অ্যাপারেলস নামে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। এর ফলে ওই সড়কটি দিয়ে দেড় ঘণ্টার মতো যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে দুর্ভোগে পড়েন মানুষ।

শ্রমিকরা জানান, গত ১১ আগস্ট তারা ঈদের ছুটিতে যান। ছুটির পর আজ গার্মেন্টস খোলার কথা ছিল। কিন্তু সকালে গিয়ে তারা কারখানার গেটে তালা দেখতে পান। সেখানে আজ থেকে গার্মেন্টস বন্ধ এমন নোটিশ টানানো অবস্থায় দেখতে পান তারা। এতে বিক্ষুব্ধ হয়ে শ্রমিকরা সড়কে নেমে পড়েন। সড়ক বন্ধ করে প্রতিবাদ করায় শ্যামলী থেকে কল্যাণপুরের সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরানোর চেষ্টা করেন। প্রায় দেড় ঘণ্টা পর শ্রমিকরা সড়ক ছেড়ে দিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

আন্দোলনে অংশ নেওয়া শ্রমিক রুহুল জানায়, ‘আগে থেকে নোটিশ দিয়ে গার্মেন্টস বন্ধ করে দেওয়া হয়নি। এমনকি তাদের বেতনও বকেয়া রয়েছে। সকাল থেকে গার্মেন্টসের কেউ কোনো কথা বলেনি। কেউ কোনো সমাধান দিতে পারেনি। গার্মেন্টস বন্ধের তিন মাস আগে শ্রমিকদের অবহিত করে তাদের পাওনা পরিশোধ করতে হয়। এসব কিছু না করায় বাধ্য হয়ে রাস্তায় অবস্থান নেন।’

আরেক শ্রমিক আবদুল কুদ্দুস বলেন, ‘আমাদের বেতন-বোনাসসহ পাওনা টাকা দিতে হবে। এই দাবি পূরণ না হলে আমরা আবার সড়কে আসব। এর আগেও বকেয়া বেতনের দাবিতে কয়েকমাস আগে আমরা সড়কে নেমে আন্দোলন করেছিলাম। তখন মালিকপক্ষ বলেছিল ছয় মাসের মধ্যে আমাদের পাওনা পরিশোধ করে দেবে। কিন্তু এখন কিছু না বলে হঠাৎ গার্মেন্ট বন্ধ করে দিল।’

মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিজি বিশ্বাস ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সাড়ে এগারেটার দিকে গার্মেন্টসকর্মীরা সড়ক ছেড়ে দিয়েছে। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।’

ঢাকাটাইমস/২১আগস্ট/এসএস/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :