জগন্নাথে বৃত্তি পেয়েছেন ১১১৬ শিক্ষার্থী

জবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:২২

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) অধ্যয়নরত ১১১৬ জন শিক্ষার্থীকে মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ের  ৩৬টি বিভাগ ও দুটি ইনস্টিটিউটের বিভিন্ন সেমিস্টারে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের মাঝে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তর থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত মেধাবী, অস্বচ্ছল এবং দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীদের পড়ালেখার সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রতিবছর মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান করে আসছে। বিগত ছয় বছরে জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত প্রায় ৪৭৪২ জন ছাত্র-ছাত্রী বৃত্তির সুবিধা পেয়েছেন। এদের মধ্যে মেধা বৃত্তি প্রাপ্তির সংখ্যা ১৩৬৮টি এবং অবৈতনিক বৃত্তি প্রাপ্তির সংখ্যা ৩৩৭৪টি। বৃত্তির সুবিধার মধ্যে বিনা বেতনে অধ্যয়নসহ প্রতি মাসে চারশ টাকা হারে মাসিক বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরতদের মধ্যে মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান ছাড়াও সকল ধরণের প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রীদের যাবতীয় শিক্ষা ব্যয়, যেমন-মাসিক বেতন, ভর্তি ফি, পরীক্ষা ফি ইত্যাদি মওকুফ করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জানানো হয়, শিক্ষার্থীদের প্রণোদনা প্রদানে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ১১১৬ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান করা হচ্ছে। ১৫ সেপ্টেম্বর-২০১৯ তারিখে উপাচার্যের সভাপতিত্বে অধ্যায়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান সংক্রান্ত কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে অধ্যয়নরত বিভিন্ন সেমিস্টারের আবেদনকৃত ১,৫১২ জন শিক্ষার্থীদের আবেদন যাচাই-বাছাইপূর্বক ১১১৬ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এর মধ্যে স্নাতক পর্যায়ে ৩০৭ জনকে মেধাবৃত্তি এবং ৭১০ জনকে অবৈতনিক বৃত্তি এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ৪০ জনকে মেধাবৃত্তি এবং ৬৯ জনকে অবৈতনিক বৃত্তি প্রদান করা হয়। মেধাবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা বিনা বেতনে অধ্যায়নসহ বাৎসরিক ৪৮০০ হারে এক শিক্ষাবর্ষের জন্য বৃত্তি পাবে। এছাড়াও মেধা ও অবৈতনিক বৃত্তিপ্রাপ্ত সকল শিক্ষার্থী শুধু বৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষাবর্ষের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা বেতনে অধ্যায়নের সুযোগ পাবে।

(ঢাকাটাইমস/২৩সেপ্টেম্বর/আইএইচ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :