‘শিপিং সেক্টরেও উন্নয়ন করছে সরকার’

চট্টগ্রাম ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১২:২৭ | প্রকাশিত : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ২১:১৩

‘সরকারের চলমান উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় সব স্তরে কাজ করে চলেছে সরকার। সরকার শিপিং সেক্টরও অন্যতম। এখানে দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে ইনস্টিটিউটগুলো ভূমিকা রাখছে।’

মঙ্গলবার সকালে নগরীর সল্টগোলা ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউটের (এনএমআই) ২০তম ও মাদারীপুর শাখার নবম ব্যাচের বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘এনএমআইকে প্রিসি ক্যাডেট কোর্স পরিচালনার অনুমোদনের পাশাপাশি প্রশিক্ষণের মান আন্তর্জাতিক পর্যায়ে উন্নীত করা হয়েছে। তাই জাহাজে চাকরির পাশাপাশি জাহাজ নির্মাণ শিল্পের কাজে সুযোগ পাচ্ছে প্রশিক্ষণার্থীরা।’

ইনস্টিটিউটের বিদায়ী প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘তোমরা বহির্বিশ্বে দেশের একেকজন দূত। তাই তোমাদের অন্তরে দেশকে ধারণ করতে হবে। সাথে সততা ও নিষ্ঠা নিয়ে কাজ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে প্রধানমন্ত্রী মেরিটাইম সেক্টরকে এগিয়ে নিয়েছেন। তোমাদের মাধ্যমে বিশ্ববাসী জানবে বাংলাদেশে আমাদের মেরিটাইম সেক্টরের অগ্রগতির কথা।’

এদিকে অনুষ্ঠানের শুরুতে মন্ত্রী প্রশিক্ষণার্থীদের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন। পরে সেরা প্রশিক্ষণার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন তিনি। এবার স্বর্ণপদকে ভূষিত হয়েছেন তাসওয়ার জাহান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নৌ-বাণিজ্য দপ্তরের মহাপরিচালক কমোডোর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম। এতে স্বাগত বক্তব্য দেন এনএমআই'র অধ্যক্ষ ক্যাপ্টেন ফয়সাল আজিম। এছাড়া বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল জুলফিকার আজিজ উপস্থিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য, এবার চট্টগ্রাম ও মাদারীপুর থেকে ডেক বিভাগে ১০০ জন, ইঞ্জিন বিভাগে ৬৪ জন ও ফিটার কাম ওয়েল্ডার বিভাগে ১৪ জনসহ মোট ১৭৮ জন রেটিংস (নাবিক) উত্তীর্ণ হয়েছেন। ১৯৯৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত উত্তীর্ণ হয়েছেন ২ হাজার ৯৮৭ জন।

(ঢাকাটাইমস/১৫অক্টোবর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বন্দর নগরী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :