খেলোয়াড়দের পারিবারিক সমস্যাও আমি দেখি: পাপন

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ অক্টোবর ২০১৯, ২০:৩০

সোমবার পারিশ্রমিকসহ ১১ দফা দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেন ক্রিকেটাররা। দাবি না মানলে খেলা বর্জনের ঘোষণা দেন তারা। তারই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার জরুরি সভা ডাকে বিসিবি। বোর্ড পরিচালকদের সঙ্গে আলোচনার পর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান দাবি করেন, এসব ধর্মঘট বা আন্দোলন এটা ক্রিকেটকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র। 

এ সময় ক্রিকেটারদের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিসিবি প্রধান। একই সঙ্গে তাদের ব্যক্তিগত জীবনকে টেনে আনেন তিনি। বিভিন্ন সময় ক্রিকেটারদের পরিবারকে সাহায্য করার কথাও বলেন পাপন। ক্রিকেটারদের প্রচুর সুযোগ সুবিধা দেন দাবি করে রাগ ঝাড়েন নাজমুল হাসান। মুশফিক-মিরাজদের আচরণ তাকে হতাশ করেছে বলেও জানান তিনি। 

পাপন বলেন, ‘আমি মুশফিকের বাবারে বাঁচাইছি, মিরাজের খালারে কারা মারতে আসছে তারে বাঁচাইছি আর ওরা এসব বলে? উত্তরায় জমি দখল করছে কারা, আমি উদ্ধার করি আর ওরা বলে ওদের জন্য কিছু করি না! আমি না থাকলে জেলে যাইতে হতো কাউরে। তাদের আর কীভাবে ট্রিটমেন্ট করা উচিত আমি জানি না।’ 

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের বেতন দেড় লাখ থেকে চার লাখ টাকায় পৌঁছানোর গল্পটিও বলেন পাপন। তিনি বলেন, ‘আমরা যখন (পরিচালনা পর্ষদে) এসেছি ওদের বেতন ছিল দেড় লাখ টাকা। এটা বাড়িয়ে করলাম আড়াই লাখ টাকা। বেশি দিন আগের কথা না, শ্রীলঙ্কায় সিরিজ খেলে আসছে; মাশরাফি আর তামিম দুজন আমাকে লাউঞ্জে বলছে বেতনটা বাড়িয়ে দেন না। বললাম, কত আছে? বলল, আড়াই লাখ। ওরা বলল, আরেকটু বাড়ায়ে দেন। একজন বলল বেশি করে বাড়িয়ে দেন। আরেকজন বলল না ৫০ হাজার টাকা বাড়িয়ে দেন। সেটি হলে হয় তিন লাখ। ওখানে বসেই করলাম ৪ লাখ। বললাম, তোমাদের বেতন এখন থেকে ৪ লাখ টাকা। ওদের সঙ্গে এটাই আমাদের সম্পর্ক। কখনো ওরা বলতে পারবে আমাদের কাছে যেটা চেয়েছে, সেটা দিইনি!’

এ সময় খেলোয়াড়দের কোচের প্রসঙ্গেও কথা বলেন বোর্ড সভাপতি। তিনি বলেন, ‘আসলে ওদের কোচ পছন্দ না। আমি যাকেই আনি ওরা পছন্দ করে না। ওরা আসলে চায় দেশি কোচ। কোচ না থাকলে আরো খুশি। কিন্তু ক্রিকেটারদের ইচ্ছায় চললে তো প্রবলেম।’

(ঢাকাটাইমস/২২ অক্টোবর/এআইএ)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :