পেঁয়াজের দাম বেঁধে দিল শ্যামবাজার বণিক সমিতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ১১:০১ | প্রকাশিত : ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:১৭

প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় ধরে দেশের বাজারে অস্বাভাবিকভাবে বাড়তে থাকা পেঁয়াজের দাম বেঁধে দিয়েছে শ্যামবাজার বণিক সমিতি। বেঁধে দেওয়া মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করার ঘোষণা দিয়েছে বণিক সমিতি।

শুক্রবার থেকে নিজেদের বেঁধে দেওয়া মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করবে পাইকারি ব্যবসায়ীরা।

বেঁধে দেওয়া মূল্য অনুযায়ী মিয়ানমারের পেঁয়াজ প্রতিকেজি ৮০ থেকে ৮৫ টাকায় বিক্রি করবেন তারা। এছাড়া মিশর, তুরস্ক ও চীনের পেঁয়াজের কেজিপ্রতি ৫৫ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি করা হবে।

সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করার পর বাংলাদেশে এই খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে কেজি ৬০-৭০ টাকা থেকে এক লাফে দেড় শ কাছাকাছি যায়।

অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে ট্রাকে করে খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রির পাশাপাশি বিভিন্ন আড়তে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয়। এরমধ্যে মিয়ানমার থেকেও পেঁয়াজ আসে।

এসব তৎপরতায় পেঁয়াজের দামের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা বন্ধ হয়ে তা কমতে শুরু করে। এছাড়া দেশে চাষ করা নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করায় নিত্যপ্রয়োজনীয় এই পণ্যটির দাম কিছুটা কমে আসে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর বাজারগুলোতে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয় ১২০-১৩০ টাকা।

পেঁয়াজের মূল্য কমানোর জন্য সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ীদের ভূমিকা রাখতে বলা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে শুক্রবার থেকে নিজেদের বেঁধে দেওয়া মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করার ঘোষণা দেয় শ্যামবাজার বণিক সমিতি।

সমিতি পাইকারি ব্যবসায়ীদের একটি মূল্য তালিকা দিয়েছে। বেঁধে দেওয়া মূল্যের বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সমিতির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

শ্যামবাজারের পেঁয়াজ ও রসুন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, শুক্রবার থেকে শ্যামবাজার বণিক সমিতির বেঁধে দেওয়া দামে আমরা পেঁয়াজ বিক্রি করব। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বেঁধে দেওয়া মূল্যে বাজারের ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ বিক্রি করবেন।

ঢাকাটাইমস/৮নভেম্বর/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :