বিএনপির দিবাস্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৪:১৩ | প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৪:০৫

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে বিএনপি দিবাস্বপ্ন দেখছে, তাদের এই স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। স্বচ্ছ ইমেজের প্রার্থী দেয়ায় দুই সিটিতে নিজেদের প্রার্থীরা বিজয়ী হবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

শনিবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। 

বিএনপি নির্বাচনে জিতলে সুষ্ঠু আর হারলে বলে কারচুপি, এটি তাদের পুরানা অভ্যাস মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের আগে বিএনপি দিবাস্বপ্ন দেখে। তারা যেকোনো নির্বাচনের আগে তাদের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে বলে প্রচার করে। আর নির্বাচনের পরে তারা হেরে যায়। এবার সিটি নির্বাচনে তাদের দিবাস্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে।’

ইভিএম নিয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দুই সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতি নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে মন্তব্য করেছেন তা বিভ্রান্তিকর। কারণ তিনি নিজেও ইভিএম পদ্ধতির ভোটে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন বগুড়া সদর আসন থেকে। সর্বশেষ ইভিএমে বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া পৌরসভায় যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে, তাতে বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন। ইভিএমে সুষ্ঠু নির্বাচনের এর চেয়ে প্রকৃষ্ট উদাহরণ আর কী হতে পারে?’

দুই সিটিতে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিজয়ে আশাবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা ক্লিন ইমেজের দুজনকে মনোনয়ন দিয়েছি। জনগণ স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রার্থীকে পছন্দ করে। আগামী নির্বাচনে দুই সিটিতে মেয়র হিসেবে আমাদের প্রার্থীরা বিজয়ী হবেন বলে আমি আশা করি।’

কাদের বলেন, ‘এবার ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমাদের ক্লিন ইমেজের দুই মেয়র প্রার্থীর পক্ষে যেভাবে গণজোয়ার উঠেছে তাতে আশা করছি আমাদের প্রার্থীরা বিজয়ী হবে। কারণ দেশের মানুষ জানে কোন প্রার্থীকে ভোট দিলে উন্নয়ন হবে।’

হিন্দু সম্প্রদায়ের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন হলে আওয়ামী লীগ বা সরকারের কোনো আপত্তি থাকবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘একই দিনে সিটি নির্বাচন এবং সরস্বতী পূজা নিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। নির্বাচন কমিশন তাদের সঙ্গে কথা বলে গ্রহণযোগ্য একটি তারিখ ঠিক করবে বলে প্রত্যাশা করছি।’

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল মান্নান এমপির মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করেন ওবায়দুল কাদের।

এ সময় দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এস এম কামাল হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইজ্ঞিনিয়ার আব্দুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/১৮জানুয়ারি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :