কুমিল্লায় দুই বাড়ি লকডাউন

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০১:০৯ | প্রকাশিত : ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০১:০৭

কুমিল্লার দেবিদ্বার ও দাউদকান্দিতে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দুই বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। রবিবার বিকালে দেবিদ্বার উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের তুলাগাঁও গ্রামের একটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। ওই গ্রামের একজন ঢাকায় করোনায় আক্রান্ত রয়েছেন। তবে ঢাকা থেকে স্ত্রী সন্তান কুমিল্লার বাড়িতে আসায় ওই বাড়িটিও লকডাউন করা হয়।

দেবিদ্বারের সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিদা আক্তার কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য শাহাজান সরকারের বাড়িটি লকডাউন ঘোষণা করেন। কারণ শাহজাহান সরকারের ভাই ঢাকায় করোনায় আক্রান্ত হন। তবে তার ভাইয়ের স্ত্রী ও সন্তানদের কুমিল্লা গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দেন। আর এ কারণেই বাড়িটি লকডাউন করা হয়।

দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাকিব হাসান জানান, সুলতানপুর তুলাগাঁও গ্রামের একজন লোক ঢাকায় করোনা আক্রান্ত হন। তবে আক্রান্ত ব্যক্তি ঢাকায় থাকেন। তিনি আক্রান্ত হওয়ার পর তার দুই মেয়ে এবং স্ত্রীকে কুমিল্লা দেবিদ্বারে গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। তার স্ত্রী সন্তানদের মধ্যে করোনা সংক্রমণের কোন উপসর্গ নেই। তবুও সতর্কতা অবলম্বন করে বাড়িটিকে লকডাউন ঘোষণা করেছি। বাড়ির সদস্যদের বলেছি, আপনাদের করোনার কোন উপসর্গ না থাকলেও আগামী ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকেন। তাতে সবার মঙ্গল।

অন্যদিকে রবিবার সন্ধ্যায় করোনা সংক্রমণ লক্ষণ দেখা দেয়ায় কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার একটি বাড়ির লকডাউন করা হয়। দাউদকান্দি উপজেলা কর্মকর্তার নির্দেশে ইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের ভেলানগর গ্রামের ওই বাড়িটি লকডাউন করা হয়।

দাউদকান্দি উপজেলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম খান বলেন, ইলিয়টগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের ভেলানগর গ্রামের একজন লোক অসুস্থতা করোনা উপসর্গের সাথে সামঞ্জস্য থাকায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার পরামর্শে ওই বাড়ির ছয়টি পরিবারকে লকডাউন করেছি। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত দুজন পুলিশ, তিনজন গ্রাম পুলিশ ও দুজন স্বেচ্ছাসেবককে লকডাউনকৃত পরিবারের পাহারায় থাকতে বলে দিয়েছি। সোমবার আক্রান্ত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হবে। রিপোর্ট আসলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।

(ঢাকাটাইমস/৫এপ্রিল/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :