পাবনার চরে ‘রাসেল ভাইপার’ সাপের উপদ্রব

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা
 | প্রকাশিত : ০৩ জুন ২০২০, ১৪:৩০

পাবনার চর অঞ্চলে দেখা দিয়েছে বিলুপ্তপ্রায় বিষধর ‘রাসেল ভাইপার’ সাপের উপদ্রব। পদ্মার চরের ফসলের মাঠ, ঝোপ ঝাড় এমনকি বসতবাড়িতেও দেখা মিলছে বিষাক্ত এ সাপটির। এটি বর্ষায় জনবসতি অঞ্চলে চলে আসতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এতে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে চর অঞ্চলের সাধারণ মানুষ। প্রতিষেধকের সহজলভ্যতা না থাকায়, চরাঞ্চলের মানুষকে সর্তকতার সঙ্গে কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

গত শনিবার রাতে ঈশ্বরদী উপজেলার সাড়া ইউনিয়নের মাঝদিয়া বড় পাড়া গ্রামের সেলিনা খাতুন নিজ ঘরেই ওই সাপের কামড়ের শিকার হন। পরিবারের লোকজন ওই সাপটিকে মেরে রোগীর সঙ্গেই নিয়ে আসেন হাসপাতালে। পরে চিকিৎসকরা পরিবেশবিদদের সহায়তায় নিশ্চিত হন ‘রাসেল ভাইপার’ নামে বিষাক্ত সাপ এটি। তবে কামড়ের শিকার হলেও সৌভাগ্যক্রমে সেলিনার শরীরে ওই সাপটি বিষ প্রয়োগ করতে পারেনি বলে ধারণা চিকিৎসকদের।

এই ঘটনার পরে পাবনা জেলা প্রশাসকের নির্দেশে গত সোমবার সকালে সদর উপজেলার দোগাছি ইউনিয়নের কমরপুর বিস্তৃর্ণ পদ্মার চরাঅঞ্চল পরিদর্শনে যান প্রশাসনের পাঁচ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল।

এসময় স্থানীয় কৃষক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চরে নতুন নতুন পোকামাকরসহ বিভিন্ন জাতের সাপের দেখা মিলছে। গত বছর বিষধর পোকা দেখা দিয়েছিল এবার সাপের দেখা মিলছে। সম্প্রতি এই চরে কাজে এসে বেশ কয়েকজন সাপের কামড়ে আক্রান্ত হয়েছে বলেও জানান তারা।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ড আবু সালেহ মোহাম্মদ জানান, গত একমাসের মধ্যে সদর ও সুজানগর উপজেলার পদ্মার চরগুলিতে একাধিকবার দেখা মিলছে বিষাক্ত এই সাপটির। এটি বর্ষা মৌসুমে আশপাশের লোকালয়েও ছড়াতে পারে। এই সাপের প্রতিষেধক নেই বললেই চলে। তাই চর অঞ্চলগুলোতে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।

সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তোজাম্মেল হোসেন বলেন, ‘ বিষাক্ত সাপের কথা শুনে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে চর অঞ্চলগুলোতে বেশ কয়েকবার পরিদর্শনে গিয়েছি। আমাদের চোখে এখনো পড়েনি ওই সাপ। তবে এই সাপের কামড়ে বেশ কিছু মানুষ আক্রান্ত হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। এই সাপ অন্যান্য সাপের থেকে দ্রুত বংশ বিস্তার করে। চর অঞ্চলের কৃষদের সাবধানের কাজ করতে হবে।’

পরিদর্শন দলের প্রধান সহকারি কমিশনার জানান, কৃষকদের সাবধানে গামবুট পরে কাজ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে চরঅঞ্চলের কৃষকদের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

ঢাকাটাইমস/৩জুন/পিএল

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :