মাক্স না থাকলে পণ্য বিক্রি করবেন না ব্যবসায়ীরা

বাগেরহাট প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০২০, ১৬:৫৪

‘মুখে মাক্স পরা না থাকলে আমি পণ্য বিক্রি করব না’- এই স্লোগানে বাগেরহাটে ব্যতিক্রমী প্রচারাভিযানে নেমেছে ব্যবসায়ীদের সংগঠন শিল্প ও বণিক সমিতি এবং বেসরকারি সংস্থা ডেমক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল। রবিবার দুপুরে বাগেরহাট শহরের শালতলা মোড়ে এই ব্যতিক্রমী প্রচারাভিযানের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ।

ক্রেতাদের মুখে মাক্স পরা না থাকলে দোকানিরা তাদের কাছে কোন পণ্য বিক্রি না করার অঙ্গীকার করেছেন। বাগেরহাট শহরের শালতলা মোড়, কাজী নজরুল ইসলাম সড়ক, মেইন রোড, খানজাহান আলী সড়কসহ বিভিন্ন সড়কের দোকানে দোকানে স্টিকার লাগিয়ে এ প্রচারণা চালানো হয়।

জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ বলেন, বাগেরহাট জেলা শহরকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চেম্বার অব কমার্স ব্যতিক্রমী একটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। মুখে মাক্স পরা না থাকলে দোকানিরা ক্রেতা সাধারণের কাছে পণ্য বিক্রি করবে না এমন প্রচারমূলক পোস্টার ছাপিয়ে দোকানে দোকানে লাগিয়ে দিচ্ছেন। এতে দোকানিদের পাশাপাশি ক্রেতাদের মধ্যে সচেতনতা বাড়বে। কেননা মুখে মাক্স না পরলে ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়ায়। তাই বাড়ির বাইরে আসা সবার জন্য মাক্স পরা এখন বাধ্যতামূলক।

বাগেরহাট ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের এডভোকেসি টিমের সদস্য সাংবাদিক আহাদ হায়দার বলেন, সম্প্রতি বাগেরহাট জেলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অস্বাভাবিকহারে বাড়তে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে জেলায় ৭৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাগেরহাটবাসীকে ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা করতে জনসমাগমের উৎসস্থল হাট-বাজারে আসা মানুষকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিতে শিল্প ও বণিক সমিতির সাথে আমরা সভা করি। যেহেতু হাঁচি, কাশির মাধ্যমে করোনা ছড়ায়, সেহেতু সবার মুখে মাক্স পরা বাধ্যতামূলক। তাই দোকানিরা যাতে সবাই মাক্স পরে কেনাবেচা করেন এবং যারা ক্রেতা সাধারণ তারা মাক্স না পরে এলে তাদের কাছে পণ্য বিক্রি না করতে উদ্বুদ্ধ করা হয়। তারা আমাদের সাথে একমত পোষণ করায় আমরা যৌথভাবে প্রচারাভিযান শুরু করেছি। এতে ভাইরাসের সংক্রমণ অনেকাংশে কমে আসবে বলে মনে করেন এই এভোকেসি টিমের সদস্য।

বাগেরহাট শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শেখ লিয়াকত হোসেন লিটন বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে শিল্প ও বণিক সমিতি সব সময় সচেতন রয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে যেন সব ব্যবসায়ীরা কেনাবেচা করেন তার জন্য শুরু থেকেই আমরা কাজ করছি। তারই অংশ হিসেবে ‘মুখে মাক্স পরা না থাকলে আমি পণ্য বিক্রি করব না’- এই স্লোগানে বেসরকারি সংস্থা ডেমক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় আমরা প্রচারাভিযানে নেমেছি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীন, বাগেরহাট শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শেখ লিয়াকত হোসেন লিটন, বাগেরহাট ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের এডভোকেসি টিমের সদস্য ষাটগম্বুজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আকতারুজ্জামান বাচ্চু, সদস্য নকিব নজিবুল হক নজু, মেহেবুবুল হক কিশোর, লুনা সিদ্দিকী প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/১৪জুন/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :