ধর্ষণের প্রতিবাদে রাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের খালি পায়ে পদযাত্রা

রাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ অক্টোবর ২০২০, ১৬:২৫

সারাদেশে ঘটে যাওয়া ধর্ষণ এবং নির্যাতনের প্রতিবাদে খালি পায়ে পদযাত্রা করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষক ও কয়েকজন শিক্ষার্থী।

শুক্রবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জোহা চত্বর থেকে নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত প্রায় ছয় কিলোমিটার হাটেন তারা। এসময় তারা ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

এ পদযাত্রায় শিক্ষকদের মধ্যে অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ফরিদ খান ও আরবী বিভাগের অধ্যাপক ইফতেখারুল আলম মাসউদসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী অংশ নেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে এক ফেসবুক পোস্টে এই পদযাত্রা মুমুর বিষয়টি জানান অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন খান। সে অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে পদযাত্রা শুরু হয়। পদযাত্রাটি রাজশাহী নগরীর জিরোপয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়ে বেশ কয়েক মিনিট অবস্থান করেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এসময় অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন খান বলেন, ‘দেশব্যাপী নারীদের উপর চলমান নৈরাজ্য, সহিংসতা, ধর্ষণের প্রতিবাদে আমরা আজ পথে দাঁড়িয়েছি। নারীদের প্রতি সম্মান জানাতেই আমরা খালি পায়ে পদযাত্রা করছি। আমরা একটি ধর্ষণমুক্ত সমাজ চাই।’

তিনি আরো বলেন, ‘বর্তমান সমাজে ধর্ষণ একটি ব্যাধি হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমাদের এখনই সময় নিজ নিজ জায়গা থেকে স্বোচ্চার হওয়ার। আজ নোয়াখালীতে নারী নির্যাতন হয়েছে, কাল যে আমাদের মা-বোন হবে না তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। রাষ্ট্র আইন করে তবে তার প্রয়োগ যথাযথ করতে পারে না। তাই আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। মূলত একটা ভালো সমাজের জন্য এবং সমাজের যাবতীয় অসঙ্গতিগুলোর বিরুদ্ধেই আমাদের এই পদযাত্রা।’

অধ্যাপক ইফতিখারুল আলম মসাউদ বলেন, ‘আজ দেশব্যাপী নারীর প্রতি যে ধরণের ভয়াবহ নিপীড়ন ও সহিংস আচরণের প্রকাশ ঘটছে, তার প্রতিরোধে যার যার অবস্থান থেকে একযোগে প্রতিবাদ করতে হবে। এটা মানবতাবিরোধী অপরাধ। পরিবার থেকে শুরু করে প্রতিটা প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাকে এর বিরুদ্ধে সচেতনতা তৈরিতে এগিয়ে আসতে হবে। রাষ্ট্রকে এর বিরুদ্ধে কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করতে হবে। সর্বস্তরে নৈতিকতার চর্চা ও শিক্ষা বাস্তবায়ন করতে হবে।’

(ঢাকাটাইমস/৯অক্টোবর/পিএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :