জনসচেনতামূলক কবিতা: শিশুকে পুরোমাত্রায় টিকা দিন

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
 | প্রকাশিত : ২৭ নভেম্বর ২০২০, ২৩:০১

হাম-পোলিও ডিপথেরিয়া; শিশুর জীবন নেয় কাড়িয়া।

ধনুষ্টংকার-হুপিংকাশি; শিশুর জন্য সর্বনাশি।

যক্ষা রোগে যদি ধরে,শিশু যাবে যমের ঘরে।

রোগ ছ’টি হয় প্রতিহত,টিকা দিলে সময় মতো।

মারাত্মক যে ছয়টি ব্যাধি,অশ্রু ঝরায় নিরবধি।

মাতা-পিতার দায়িত্ব কী? সর্বপ্রথম বলছি সেটি।

সর্বনাশা ছয়টি রোগে,লক্ষ কোটি শিশু ভোগে।

মাতাপিতার থাকলে সে বোধ,শিশুর ব্যাধি হয় প্রতিরোধ।

প্রতিরোধক টিকা দিলে, সুস্থ-সবল শিশু মিলে।

ধনী-গরীব যা-ই বলুন,টিকা কেন্দ্রে আজই চলুন।

শহর কিংবা গ্রামে থাকুন, টিকার কথা স্মরণ রাখুন।

দাওনি টিকা যে বাচ্চারে, বিকলাঙ্গ হতেই পারে।

অবুঝ শিশুর অঙ্গহানী, জীবন ভরা চোখের পানি।

শিশুর অঙ্গ বিকল হলে, পিতা-মাতার ফাঁস সে গলে।

বিকলাঙ্গ শিশুর জীবন, বাঁচিয়াও মরার মতন।

অঙ্গ যদি বিকল থাকে, জ্বালায় শিশু বাবা-মাকে।

বিকলাঙ্গ দুর্বিষহ, সমাজে সে গলগ্রহ।

সর্বঅঙ্গে সুস্থ যে-রে, এমন শিশু চায়না কে-রে।

বলছি শোনো আসল কথা, টিকাই তার নিশ্চয়তা।

অবুঝ শিশুর অকাল মরণ, নয়রে কভু ললাট লিখন।

আর বলোনা বিধির বিধান; প্রতিষেধক খোদারই দান।

অসচেতন বাবা মা-ই, এই মরণের জন্য দায়ী।

টিকা দেয়ার লাভটা জবর,দেখতে হয় না শিশুর কবর।

তোমরা কেমন মাতা-পিতা,জ্বলতে দেখো শিশুর চিতা।

দেখছো তুমি শিশুর দাফন, তবু তোমার হয়না চেতন।

টিকাবহীন শিশুর দেহ,রোগ-বালাই আর যমের গৃহ।

টিকাবিহীন শিশুর দ্বারে,যমদূতেরা কড়া নাড়ে।

শিশুর ভালো চাও যদি ভাই, টিকার কোনো বিকল্প নাই।

ভাইবোনেরা সবাই শোনো,বিকল্প নেই টিকার কোনো।

দায়িত্বহীন ভালবাসা,শিশুর জন্যে সর্বনাশা।

টিকা দিতে করলে হেলা, ডুববে শিশুর জীবন ভেলা।

কাল ব্যাধিরা ছোবল মেরে, সোনা মানিক নিবেই কেড়ে।

ছয়টি রোগের আক্রমনে, মরবে শিশু সংক্রমনে।

চিকিৎসকের বুদ্ধি নেবেন, পুরো মাত্রায় টিকা দিবেন।

সুস্থ শিশু চাইলে ঘরে, টিকা দেবেন খেয়াল করে।

কালব্যাধি যে ছয়টি আছে,মানবোনা হার তাদের কাছে।

প্রতিষেধক টিকার দ্বারা,কালব্যাধিদের জীবন সারা।

ব্যাধি হবে পরাভূত, টিকা দিবেন যথাযথ।

সংক্রামক এ-রোগগুলোকে,স্থান দেবোনা এ-মুলুকে।

পূর্ণ টিকা প্রাপ্ত হলে, বাঁচবে শিশু স্বাস্থ্য বলে।

মাতা-পিতা হও সচেতন,করতে শিশুর স্বাস্থ্য যতন।

টিকা প্রদান করতে হবে,সুস্থ জাতি গড়তে হবে।

টিকা দেয়ার নেই ঝামেলা, টিকা কেন্দ্র আছে মেলা।

এগাঁও কিংবা ওগাঁও যাবেন, টিকা কেন্দ্রে টিকা পাবেন।

বিনা পয়সায় টিকা দিয়ে,ফিরবেন সুস্থ শিশু নিয়ে।

নিরাপদে বাঁচবে সোনা, যাকে ঘিরে স্বপ্ন বোনা।

থাকতে সময় হও সচেতন, টিকা দিও সময় মতন।

সময় গেলে কান্নাই সার,সোনা মানিক ফিরবেনা আর।

টিকা যদি না দাও তবে, মায়ের বুকটা শূন্য হবে।

যতোই করো আহাজারি,শিশু যাবে যমের বাড়ি।

মায়ের কোলে চাঁদ রবেনা, কাঁদলে কোনো ফল হবেনা।

বুক ভাসালে চোখের জলে,শিশু কি আর ফিরবে কোলে ?

ষড়রোগের উৎসধারা, টিকার গুণে যাচ্ছে মারা।

চাইলে শিশুর স্বর্গ-হাসি, টিকা দেবেন শীঘ্র আসি।

টিকা দিলে শিশুটিরে, যম ঘেষেনা তার কিনারে।

পুরোমাত্রায় টিকা দিলে, নিরোগ শিশুর আদর মিলে।

শেষ টিকাটি যেদিন দিলেন, সুস্থ শিশু ঘরে নিলেন।

সুস্থ শিশু ঘরের বাতি, ভবিষ্যতের সুস্থ জাতি।

-

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :