প্রতারণার অভিযোগে খানসামার কথিত জননেতা গ্রেপ্তার

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ এপ্রিল ২০২১, ২০:৫৩

চাকরি দেয়ার নাম করে টাকা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার দয়াল চন্দ্র রায়(৩০) দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভেড়ভেড়ী ইউনিয়নের চকরামপুর গ্রামের কথিত জননেতা। তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, দয়াল চন্দ্র রায় অনেক বড় বড় কথা বলেন। তিনি কখনো জাতীয় পার্টির নেতা। আবার কখনো আওয়ামী লীগের নেতা। কখনো ইউপি সদস্য প্রার্থী। আবার কখনো চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নিজেকে প্রচার করেন।

এসব প্রচারে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও দিনাজপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আবুল হাসান মাহমুদ আলী এমপির ছবিসহ ভুয়া পদ-পদবী দিয়ে পোস্টার ছাপান। প্রচারপত্র ও পোস্টার দিয়ে ছেয়ে দিয়েছে এলাকার রাস্তাঘাট ও হাট-বাজার।

পোস্টারে তিনি নিজেকে জননেতা হিসেবে আখ্যায়িত করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী বঙ্গবন্ধু প্রজন্ম লীগ দিনাজপুর জেলা শাখার সদস্য এবং আওয়ামী যুবলীগ ২ নম্বর ভেড়ভেড়ী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পদ-পদবী ব্যবহার করেন। এসব পরিচয় দিয়ে ‘উপর মহলে’ তার হাত রয়েছে এবং চাকরি দেয়ার সক্ষমতার কথা বলে পরিচিতজনদের থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা।

পদ-পদবী ব্যবহারের বিষয়ে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ ও যুগ্ম আহ্বায়ক বাবলুর রহমান জানান, দয়াল রায় যুবলীগের ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটির কোনো সদস্য পদেও নেই। তিনি এসব পদ-পদবী কেন ব্যবহার করলেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ভুক্তভোগী দুহশুহ গ্রামের ব্রাহ্মণপাড়ার ভিম চরন রায় জানান, দয়াল আমার সম্পর্কে জামাই। তিনি নিজেকে বিশাল বড় পরিচয় দিয়ে চলতেন। আমার ছেলে পঙ্কজ রায়কে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পে চাকরি দেয়ার নাম করে প্রায় দেড় লাখ টাকা নিয়ে টালবাহানা শুরু করেন। পরে টাকার জন্য চাপ দিলে প্রতারক দয়াল রায় আত্মগোপন করেন। আমার মতো এরকম অনেকের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এই প্রতারক।

খানসামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ কামাল হোসেন বলেন, তার বিরুদ্ধে অনেক প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে ছিলেন। একটি প্রতারণা মামলায় তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট হওয়ায় তাকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৮এপ্রিল/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :