কম পরীক্ষায় ১৩ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন শনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ মে ২০২১, ১৬:৩৫ | প্রকাশিত : ১৫ মে ২০২১, ১৬:১১
ফাইল ছবি

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা কম হওয়ায় দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরিমাণ অস্বাভাবিক কমেছে। এই সময়ে মাত্র ২৬১ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। এটি গত ১৩ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন শনাক্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের।

শনিবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

সবমিলিয়ে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ১২৪ জনে। আর গত ১৪ ঘণ্টায় তিন হাজার ৭৫৮টিসহ মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত লাখ ৭৯ হাজার ৭৯৬।

গত একদিনে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৯৬৪ জন। সুস্থতার মোট পরিমাণ সাত লাখ ২১ হাজার ৪৩৫ জন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ঈদুল ফিতরের কারণে দুদিন ধরে নমুনা পরীক্ষা অনেক কম হচ্ছে। ফলে এর প্রভাব পড়েছে শনাক্তে। ঈদের আগের দিন ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা হয়েছে সাত হাজার ৮৩৫টি নমুনা। আর ঈদের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছে তিন হাজার ৭৫৮ জনের।

নমুনা পরীক্ষা কমায় শুক্রবার শনাক্ত কমলেও বেড়েছিল শনাক্তের হার। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছিল ১০ দশমিক ৮২ শতাংশ। তবে শনিবার নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৯৫ শতাংশে নেমে এসেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের ১৫ এপ্রিলের পর একদিনে এত কম শনাক্ত আর হয়নি। ওই দিন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল ২১৯ জন। এমনকি গত বছরের ঈদুল আজহার পরদিন নমুনা পরীক্ষা গত ২৪ ঘণ্টার চেয়েও কম হলেও ওইদিন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল ৮৮৬ জনের শরীরে।

দেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। কয়েক মাস ধরে টানা মৃত্যু ও শনাক্ত ঊর্ধ্বগতিতে থাকার পর বছর শেষে কয়েক মাস ক্রমান্বয়ে কমতে থাকে। চলতি বছরের শুরুতে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত অনেকটা কমে আসে। তবে গত মার্চ মাস থেকে মৃত্যু ও শনাক্ত আবার বাড়তে থাকে। বিশেষজ্ঞরা এটাকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বলছেন।

(ঢাকাটাইমস/১৫মে/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :