ভ্যাকসিনের জন্য ঢাবির অনূর্ধ্ব ৩০ শিক্ষক-কর্মকর্তাদের তালিকা চেয়ে চিঠি

ঢাবি প্রতিনিধি
ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২০:০৬ | প্রকাশিত : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৬:৪১

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন দিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০ বছরের নিচের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের তালিকা চেয়ে চিঠি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষা কার্যক্রম সচল রাখা এবং খুলে দেয়ার স্বার্থে পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের অবশিষ্ট সকল ছাত্র, ছাত্রী এবং শিক্ষক-কর্মচারীদেরকে জরুরিভিত্তিতে ভ্যাকসিন প্রদান করতে এই কার্যক্রম নিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, 'সকল পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অবশিষ্ট সকল ছাত্র-ছাত্রী এবং ৩০ বছরের নিচে শিক্ষক কর্মচারীদের তালিকা জরুরিভিত্তিতে মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর পাঠিয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ-কে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।'

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র রয়েছে অথচ সুরক্ষা ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করতে পারেননি তাদেরকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করার আহ্বান জানিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আবেদনের পরেরদিন সেই তথ্যাদি পরবর্তীতে ইউজিসিকে পাঠিয়েছে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। তবে সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে এখনো টিকার জন্য সুরক্ষা অ্যাপে কবে নাগাদ আবেদন করতে পারবে সে ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

দ্বিতীয় দফায় টিকার আবেদন বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসিফ হোসেন বলেন, আমাদের নেক্সট লেভেলে আমরা পাঠিয়েছি। তারপরে বাকি কার্যক্রম সম্পর্কে আমি বলতে পারবো না। সেগুলো মন্ত্রণালয়ের বিষয়। আমরা ১৭ জুলাইয়ে আবেদন শেষ করে ১৮ তারিখেই সকল তথ্যাদি পাঠিয়ে দিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের বিবৃতিতে বলা হয়, ইতোপূর্বে আবাসিক শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের যে তালিকা প্রেরণ করা হয়েছিল এবং অনাবাসিক শিক্ষার্থীর তালিকা ও ৩০ বছরের নিচে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর প্রেরিতব্য তালিকার বাইরে এনআইডি আছে এমন কোনো শিক্ষার্থী বা ৩০ বছরের নিচে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী অবশিষ্ট নেই বলে ধরে নেয়া হবে।

যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তাদের বিষয়ে ইউজিসির বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, এনআইডি নেই এমন শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর (বিদেশী শিক্ষার্থীসহ, যদি থাকে) তথ্যাদি সংগ্রহ করে তালিকা আকারে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয়ে সংরক্ষণ করতে হবে। এ বিষয়ে সরকার থেকে পরবর্তীতে নির্দেশনা গেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার জন্য কমিশন হতে যথাসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে অবহিত করা হবে।

(ঢাকাটাইমস/২৮ জুলাই/আরএল/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :