হেলেনাকে গ্রেপ্তার দেখাল র‌্যাব, বিকালে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৭:০১ | প্রকাশিত : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৪:০১

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচারের মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও ব্যক্তিদের সম্মানহানি করার অপচেষ্টার অভিযোগে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‌্যাব।

শুক্রবার দুপুরে র‌্যাবের সদর দপ্তর থেকে এক ক্ষুদে বার্তায় এ তথ্য জানানো হয়। গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রাজধানীর গুলশানে বাসায় র‌্যাবের অভিযান শেষে হেলেনাকে সদর দপ্তরে নিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

খন্দকার আল মঈন জানিয়েছেন, আজ (শুক্রবার) বিকাল ৪টায় র‌্যব সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে হেলেনা জাহাঙ্গীরের ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।

এর আগে আজ দুপুরে এক প্রশ্নের জবাবে কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া মাদক, বিদেশি মুদ্রা ও বন্যপ্রাণীর চামড়া জব্দের ঘটনায় আলাদা আলাদা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ও তথ্য মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন ছাড়া জয়যাত্রা নামক টেলিভিশন চ্যানেল পরিচালনার কারণে আলাদা মামলা হওয়ার কথা রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত ৮টার পর হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশান-২ এর ৩৬ নম্বর রোডের বাসভবনে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। দীর্ঘ চার ঘণ্টা অভিযান শেষে রাত ১২টার দিকে তাকে আটক করে র‌্যাব সদরদপ্তরে নিয়ে যাওয়া হয়।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বলেন, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় আমরা অভিযান পরিচালনা করেছি। তার বাসায় বিপুল পরিমাণের মাদকসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র জব্দ করা হয়েছে। তাকে আমরা আটক করে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দপ্তরে নিয়েছি। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামে এক ভুঁইফোড় সংগঠনের নামে অনলাইনে প্রচারণা চালান হেলেনা জাহাঙ্গীর। নিজের ছবি সম্বলিত পোস্টার দিয়ে ভুঁইফোড় সংগঠনটির প্রচারণা ও কর্মী জোগাড়ের চেষ্টা করেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা সৃষ্টি হলে নানাভাবে নিজের দায় এড়ানোর চেষ্টা করেন তিনি। এমন কি ভুঁইফোড় সংগঠনটির সভাপতি হিসেবে কমিটি দেয়ার জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন হেলেনা। এ নিয়ে বিতর্ক শুরু হলে দলের মহিলা বিষয়ক উপ-কমিটি থেকে বহিস্কার করা হয় হেলেনা জাহাঙ্গীরকে।

(ঢাকাটাইমস/৩০ জুলাই/এআর/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :