‘সাংবাদিকদের মর্যাদা প্রতিষ্ঠায় নিরলস কাজ করছে ডিআরইউ’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৬:২৫ | প্রকাশিত : ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৫:৫৭

বস্তুনিষ্ঠ-গঠনমূলক সাংবাদিকতার বিকাশ, সাংবাদিকদের কল্যাণ, পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি, পেশাদারিত্বের মানোন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) ২৬তম বার্ষিক সাধারণ সভা ২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সংগঠনের নেতাদের প্রশংসা করে স্পিকার বলেন, এই সংগঠনের নেতারা অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে সুষ্ঠু ও সুচারুভাবে কাজ করে আসছেন। ডিআরইউ প্রমাণ করেছে তারা সক্রিয় সংগঠন। এটি রিপোর্টারদের সংগঠন। তারা বস্তুনিষ্ঠ-গঠনমূলক সাংবাদিকতার বিকাশ, সাংবাদিকদের কল্যাণ, পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি ও পেশাদারিত্বের মানোন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি ও পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করেছে।

এ সময় বার্ষিক সাধারণ সভা ২০২১-এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন স্পিকার। একইসঙ্গে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ডিআরইউ-র সার্বিক সফলতা কামনা করেন তিনি।

স্পিকার বলেন, সরকার সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট আইনসহ সাংবাদিকদের অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করেছে। প্রধানমন্ত্রীর সুদক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সুবিধা পৌঁছে গেছে। ডিজিটাল সুবিধার কারণে কোভিডকালে ভার্চুয়ালি যুক্ত হওয়া সম্ভব হয়েছে।

দেশের চলমান উন্নয়নকে টেকসই করার ক্ষেত্রে গণমাধ্যমকে আরও কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ডিআরইউ পুরুষদের পাশাপাশি নারী সাংবাদিকদের পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকে, যা প্রশংসনীয়। গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে গণমাধ্যমের ভূমিকা অনস্বীকার্য। তথ্য-প্রযুক্তির অবাধ প্রবাহে সমগ্র বিশ্ব একীভূত। সোশাল মিডিয়া, অনলাইন পোর্টাল, প্রিন্ট মিডিয়ায় সঠিক তথ্য পরিবেশনের মাধ্যমে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করার আহ্বান জানান স্পিকার।

এসময় সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে স্পিকারের কাছে কয়েকটি দাবি তুলে ধরেন ডিআরইউ-র সভাপতি মুরসালিন নোমানী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার জন্য স্পিকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের দুই সহকর্মী সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি দম্পতি হত্যা মামলার বিচার এখনো হয়নি। এ পর্যন্ত ৮০ বারেরও বেশি মামলার শুনানির দিন পিছিয়েছে। এ বিষয়ে আপনার কোনো সহযোগিতা করার থাকলে আমরা সেটা প্রত্যাশা করছি। আরেক সদস্য রোজিনা ইসলাম অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা করতে গিয়ে হামলা মামলার শিকার হয়েছেন। তার মামলা প্রত্যাহারের দাবি করছি। এছাড়াও স্বাধীন সাংবাদিকতা করার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি করছি।

মুরসালিন নোমানীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শাহজাহান সরদার, রফিকুল ইসলাম আজাদ, মাহফুজুর রহমান, শফিকুর রহমান সাবু, শুক্কুর আলী শুভ, ইলিয়াস হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন বাদশাসহ সিনিয়র সাংবাদিকরা বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে ডিআরইউর কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরে সংগঠনের পক্ষ থেকে স্পিকারের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

নিয়ম অনুযায়ী সাধারণ সভার পরদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার ডিআরইউর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

(ঢাকাটাইমস/২৯নভেম্বর/বিইউ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

গণমাধ্যম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :