‘নৈতিক শিক্ষার ৯৯ ভাগ উৎসই ধর্ম’

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ২২:১৯

নৈতিক শিক্ষার ৯৯ ভাগ উৎসই ধর্ম বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে 'বোর্ড পরীক্ষায় ধর্ম শিক্ষা বহাল এবং পাঠ্যপুস্তক থেকে প্রত্যাখ্যাত বিবর্তনবাদ অপসারণ' শীর্ষক জাতীয় সেমিনারে তিনি এই কথা বলেন।

মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, ‘আমাদের সমাজ থেকে, আমাদের বাচ্চাদের থেকে, আমাদের কিশোর-তরুণদের থেকে এবং স্কুল-কলেজ থেকে ক্রমে ক্রমেই দীন ইসলাম, পবিত্র কোরআন, পবিত্র হাদিস এবং রসুল (স.) এর নাম-ধাম দূরে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।’

কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘আজকাল আমাদের বাচ্চাদের যদি বলা হয়, বাগদাদ কোথায়, বলবে আফ্রিকায়। যদি বলা হয় আজমির কোথায়, বলবে এটাও আফ্রিকায়। মোহাম্মদ (স.) কে, বলবে নবী। আর পারবে না।’

বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ মুফতি ড. সাইয়্যেদ মুহাম্মাদ এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী বলেন, ‘ইসলাম থেকে জাতিকে পদচ্যুত করতে স্কুল-কলেজ থেকে ধর্মশিক্ষা বাদ দেওয়া হচ্ছে। এতে ইসলাম সম্পর্ক জাতি সামান্য জ্ঞানও অর্জন করতে পারবে না। নবম-দশম শ্রেণিতে প্রত্যাখ্যাত বিবর্তন বাদ ঢুকিয়ে দেওয়া হচ্ছে। একদিকে জাতিকে ইসলাম থেকে পদচ্যুত করতে ধর্মশিক্ষা বাদ দেওয়া হচ্ছে, অন্যদিকে বিবর্তনবাদ ঢুকিয়ে নাস্তিক হতে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্বাসী বলেন, ‘আগামী প্রজন্ম ঘরে ঘরে নাস্তিক পাবে। মসজিদ থাকবে মুসল্লি থাকবে না। মাদ্রাসা থাকবে ছাত্র থাকবে না। মডেল মসজিদ বানানো হচ্ছে আর মুসল্লি না পাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। একদিকে মাদ্রাসার মান দেয়া হচ্ছে অন্যদিকে ঘরে ঘরে নাস্তিক বানানোর বেবস্থা হচ্ছে।’

এই ইসলামি চিন্তাবিদ বলেন, ‘মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকে ইসলাম শিক্ষা বাধ্যতামূলক করতে হবে। ইসরাইলের মতো দেশেও মাস্টার্স পর্যন্ত ধর্ম শিক্ষা বাধ্যতামূলক।’

ইসলামি চিন্তাবিদ ও গবেষক মাওলানা শায়েখ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন বলেন, ‘ধর্মীয় শিক্ষা উঠে গেলে জাহিলিয়াত বেড়ে যাবে। দেশে একদল ফাসেক তৈরি হবে। নেতারাও হবে ফাসেক। পাপীরা জাতীয় নেতৃত্ব দেবে। ব্যক্তিকে স্মরণ করা হবে ভয়ের কারণে। সর্বত্ত ধর্ষণ, রাহাজানি, ছিনতাই এবং মদের সয়লাভ হবে।’

জামাল উদ্দিন বলেন, ‘ধর্মহীন মানুষ সবচেয়ে খারাপ। ধর্ম নাই আদর্শ নাই। ধর্ম নাই মানবতা নাই। ধর্ম নাই আদর্শ নাই। ধর্ম নাই সভ্যতা নাই। ধর্মহীন শিক্ষা মানুষকে পশুতে পরিণত করবে।’ শিশু শ্রেণি থেকে মাস্টার্স পর্যন্ত ধর্ম শিক্ষা চালু করার দাবি জানান শায়েখ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন।

মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম বিলালির সভাপতিত্বে প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা নয়াটোলা কামিল মাদ্রাসার প্রধান মুহাদ্দিস ডক্টর মাওলানা এমরানুল হক।

(ঢাকাটাইমস/২২ফেব্রুয়ারি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ইসলাম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :