ঢাবি: ফের সংঘর্ষ, ক্যাম্পাসে যেতেই পারল না ছাত্রদল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ মে ২০২২, ১৩:৪০ | প্রকাশিত : ২৬ মে ২০২২, ১৩:২৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল এলাকায় ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের মধ্যে আবারও সংঘর্ষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের সামনে থেকে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা এবং কার্জন হলের সামনে থেকে ছাত্রলীগ মিছিল নিয়ে জড়ো হলে দুপুর ১২টার দিকে সংঘর্ষ বাধে।

সংঘর্ষ চলাকালে দুপক্ষকে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া করতে দেখা যায়। নেতাকর্মীদের হাতে লাঠি, হকিস্টিক, রডও দেখা যায়।

তবে কিছু সময় পরই ধাওয়া খেয়ে পিছু হটে ছাত্রদল। দোয়েল চত্বর থেকে হাইকোর্টের সামনের সড়ক পর্যন্ত অবস্থান নিয়ে মহড়া দিতে শুরু করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

গত মঙ্গলবার ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের সংঘর্ষের রেশ ছিল বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই। সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রদল বৃহস্পতিবার সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দেয়। এ পরিস্থিতিতে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করে এদিন সকাল থেকেই। ক্যাম্পাসে ছাত্রদল কর্মসূচি পালন করতে এলে তাদের প্রতিহত করার ঘোষণাও দিয়েছে ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার দেখা যায়, সকাল থেকেই ক্যাম্পাসের বিভিন্ন মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কোথাও কোথাও লাঠিসোটা হাতে মহড়া দিতেও দেখা গেছে। মূলত ছাত্রদলকে প্রতিহত করতেই এই অবস্থান। বিভিন্ন হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ছাত্রদলের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতেও শোনা যায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে কিছু নেতাকর্মী জড়ো হন সকালে। এছাড়াও টিএসসি, শহীদ মিনার, দোয়েল চত্বর, ভিসি চত্বর ও পলাশীর মতো গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান করতে দেখা গেছে। বিভিন্ন হলের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এসব দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এবং মাঝেমধ্যে স্লোগানও দিচ্ছেন। এই উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে ছাত্রদল হাইকোর্টের সামনের সড়ক থেকে মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের দিকে যাওয়া চেষ্টা করে। আর ছাত্রলীগ কার্জন হলের সামনে থেকে মিছিল নিয়ে জড়ো হয়। এরপরই শুরু হয় সংঘর্ষ, যদিও কিছুক্ষণ পরই ধাওয়া গেয়ে পিছু হটে ছাত্রদল।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার শহীদ মিনারে ছাত্রদলের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগ হামলা চালালে সংঘর্ষ বাধে। কয়েক দফা সংঘর্ষের পর ছাত্রদলকে ক্যাম্পাসছাড়া করে দেয় ছাত্রলীগ।

(ঢাকাটাইমস/২৬মে/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :