তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আর নির্বাচন হবে না: কৃষিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল
 | প্রকাশিত : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৪৪

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আমরা চাই বিএনপিসহ ছোট-বড় সকল দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। শেষ দিন পর্যন্ত আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাব- সকল দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার জন্য। আমেরিকাসহ সব দেশের অ্যাম্বাসেডর বললেও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে আয়োজিত সভায় ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বিএনপি বলছে- তত্ত্বাবধায়ক সরকার না হলে নির্বাচনে যাবে না। সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে আর কোন তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না। সংবিধানে স্পষ্ট লেখা রয়েছে, নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। সরকার নির্বাচন কমিশনকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। আজকে বিএনপি যে মহড়া দিচ্ছে, লাঠির মধ্যে বাংলাদেশের পতাকা লাগিয়ে মিছিল ও সমাবেশ করছে। সব মিলিয়ে তারা সন্ত্রাসের দিকে যাচ্ছে। ২০১৩-১৫ সাল পর্যন্ত যেভাবে মোকাবিলা করেছি, আগামীতেও ঠিক একইভাবে রাজনীতিকভাবে মোকাবিলা করব ইনশাল্লাহ।

তিনি বলেন, আমরা বিএনপিকে অনুমতি দিয়েছিলাম সভা ও মিটিং করা জন্য। সরকারের সমালোচনা করুক। দেশে পত্র-পত্রিকা রয়েছে, টেলিভিশন রয়েছে। কোথাও কোন বাধা নেই। তারপরও তারা কেন এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। এই পরিস্থিতি আমরা কোন ক্রমেই হতে দেব না। মানুষের জানমাল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা এবং দেশের উন্নয়নকে অব্যাহত রাখার জন্য আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী যা করা দরকার- তাই করবে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা চাই দেশে শান্তি। আমরা চাই দেশে সুষ্ঠু, সুন্দর ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন। এটি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আগে যাই হয়ে থাক, পরিস্থিতির কারণে হয়েছে। আমরা চেষ্টা করেছি সুন্দর পরিবেশ রাখার জন্য। বিএনপির বাড়াবাড়ির জন্য সম্ভব হয়নি। আগামীতে আমরা চেষ্টা করব, ছোটখাটো যে সকল ঘটনা হয়েছে- বিএনপির উস্কানিমূলক বক্তব্যের কারণে। তারা পুলিশের ওপর ঝাঁড়িয়ে পড়েছে। পুলিশ আত্মরক্ষার জন্য চেষ্টা করেছে। আমি মনে করি, বিএনপির মধ্যে শুভবুদ্ধির উদয় হবে। তারা এই পথ থেকে নিবৃত হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুকের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন- সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা জোয়াহেরুল ইসলাম (ভিপি জোয়াহের) এমপি, সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন, সংসদ সদস্য আতোয়ার রহমান খান, সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলমগীর খান মেনু ও শামসুল হক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আশরাফউজ্জামান স্মৃতি ও শাহজাহান আনছারী, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর।

জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য, উপজেলা ও সদর পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা বর্ধিত সভায় অংশ নেন।

(ঢাকাটাইমস/২৯সেপ্টেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :