আ.লীগের আমলে ১৪ লক্ষ কোটি টাকা পাচার হয়েছে: বুলু

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২:১১

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, বিগত ১৪ বছরে এই আওয়ামী সরকারের আমলে ১৪ লক্ষ কোটি টাকা এই দেশ থেকে পাচার হয়েছে।

১০ দফা দাবিতে ফরিদপুর সাংগঠনিক বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। শনিবার বিকালে ফরিদপুর শহরতলীর কোমরপুর আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউট মাঠে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, আজকে বাংলাদেশের মানুষের একটাই দাবি, আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব। এই দাবিতে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়েছে সারাদেশে আন্দোলন-সংগ্রাম। সেই আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের ১৭ জন ভাইকে হারিয়েছি। এই ১৭ জন ভাই বুকের তাজা রক্ত দিয়েছেন। আজকে আমরা যদি শেখ হাসিনার পতন না ঘটাতে পারি, তাহলে ১৭ জন ভাইয়ের রক্ত বৃথা যাবে, তাদের রক্তের ঋণ আমরা পরিশোধ করতে পারব না।

বুলু বলেন, আজকে বাংলাদেশকে একটি বিদেশি তাবেদার নাস্তিকবাদ সরকার নাস্তিকতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। আমি প্রথমেই এই সরকারের পদত্যাগ দাবি করব একটি মাত্র কারণেই, আজকে এদেশের আলেম-ওলামা আছেন, পীর মাশায়েখ আছেন, এদেশে ৯৫ ভাগ মুসলমান বসবাস করেন। আর এদেশের পাঠ্যপুস্তকে ডারউইনের থিউরি নিয়ে এসেছেন, আমরা নাকি বানর থেকে বিবর্তন হয়ে মানুষ হয়েছি। তাহলে কোরআনের যে ঐশী বাণী, আদম-হাওয়া থেকে মানুষের সৃষ্টি, তাহলে কোরআন কি মিথ্যা হয়ে যাবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, এই সরকার যেমনিভাবে লুট করেছে, তেমনিভাবে দেশের সম্পদ লুণ্ঠন করে বিদেশে পাচার করেছে। গত ১৪ বছরে ১৪ লক্ষ কোটি টাকা এই দেশ থেকে পাচার করেছে। কানাডায় হাজার হাজার বাড়ি করেছেন আওয়ামী পরিবারের লোকেরা।

তিনি বলেন, কানাডার সরকার আইন করেছে তারা বাংলাদেশের আওয়ামী লুটেরাদের বাড়ি কিনতে দেবে না। তাই এখন তারা দুবাই গিয়েছেন, দুবাইতে ইতোমধ্যে সাড়ে সাতশত বাড়ি কিনেছেন। একেক বাড়ির দাম দুইশ, তিনশ কোটি টাকা।

কারো নাম উল্লেখ না করে ববরকত উল্লাহ বলেন, আপনাদের মাদারীপুরের একজন সন্তান মাত্র চার বছরের এমপি, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ছিলেন। উনি চার বছরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১৭টি বাড়ির মালিক হয়েছেন। তারা এমনিভাবে দেশের সম্পদ লুণ্ঠন করেছেন।

বিএনপির ফরিদপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ইসলাম বলেন, ১০ দফা মানতে হবে, নির্দলীয় সরকার দিতে হবে। এ সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, তবেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মাশুকুর রহমান বলেন, ওবায়দুল কাদের আগে বলতেন- খেলা হবে খেলা হবে। এখন বলেন ভুয়া ভুয়া। ওনার মাথায় রোগ দেখা দিয়েছে।

আরেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিমুজ্জামান বলেন, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়তে আমাদের এ সংগ্রাম।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক এমপি শাহ মো. আবু জাফর বলেন, শেখ হাসিনার দিন শেষ, খালেদা জিয়ার বাংলাদেশ। ওবায়দুল কাদের যতই কায়দা করুক- শেষ রক্ষা হবে না। আমাদের হাতে আর সময় নেই, চূড়ান্ত আন্দোলনই আমাদের গড়ে তুলতে হবে।

এ বিভাগীয় সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ফরিদপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি এএফএম কাইয়ুম জঙ্গী।

জেলা বিএনপির সদস্য সচিব একে কিবরিয়া স্বপন ও জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক জুলফিকার হোসেন জুয়েল সমাবেশে উপস্থাপনা করেন।

(ঢাকাটাইমস/০৪ফেব্রুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের বিবৃতিতে গণঅধিকার পরিষদের উদ্বেগ

খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় সারাদেশে দোয়ার কর্মসূচি বিএনপির

প্লাটিনাম জুবিলী উদযাপনে আওয়ামী লীগ

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ক্রিটিক্যাল, দেখে এসে ফখরুল

৭৫ বছরে আ. লীগের বড় চ্যালেঞ্জ সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিহত করা: কাদের

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় নয়াপল্টন মসজিদে মিলাদ ও দোয়া

সিসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে খালেদা জিয়া: ডা. জাহিদ

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি, মধ্যরাতে হাসপাতালে ভর্তি

অত্যাচারী শাসক হিসেবে আওয়ামী লীগের নাম ইতিহাসে লিপিবদ্ধ থাকবে: টিপু

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিএনপিকে দাওয়াত

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :