সিলেটে সেনা সদস্যের মৃত্যুর মামলায় হাইকোর্টে প্রধান আসামির আগাম জামিন আবেদন নাকচ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৬ জুন ২০২৩, ১৪:৩২ | প্রকাশিত : ০৬ জুন ২০২৩, ১৩:৩৮

সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) নির্মাণাধীন ভবন থেকে বিদ্যুতের খুঁটি মাথায় পড়ে সেনা সদস্য নিহতের ঘটনায় করা মামলার ১ নম্বর আসামি মো. জামাল উদ্দিনের আগাম জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। জামাল উদ্দিন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জামাল অ্যান্ড কোম্পানির মালিক।

বিচারপতি কামরুল হোসেন মোল্লা ও বিচারপতি খন্দকার দীলিরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন মমতাজ উদ্দিন ফকির। আর রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এমরান আহম্মদ ভূঁইয়া।

গত শনিবার দুপুরে কেনাকাটা করতে সিটি মার্কেটের ভেতরে যান সেনাবাহিনীর ল্যান্স কর্পোরাল মো. দেলওয়ার হোসেন। এসময় সিসিকের নির্মাণাধীন ভবনের ১২ তলা থেকে একটি বিদ্যুতের লোহার খুঁটি তার মাথায় পড়ে। রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত দেলোয়ার হোসেন সিলেট সেনানিবাসের ১৭ পদাতিক ডিভিশনের ৫০ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারি কোরে কর্মরত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি মেহেরপুরের গাংনী থানাধীন জুগিরগোফার রায়পুর গ্রামে। তিনি এক পুত্র সন্তানের জনক।

এদিকে এ দুর্ঘটনার পর সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমানকে প্রধান করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। গণপূর্ত বিভাগ সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার রায়, সিসিকের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আলী আকবর, শিক্ষা ও প্রকৌশল অধিদপ্তর সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল হাকিম, সিসিকের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মতিউর রহমান খান, সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) রুহুল আলম ও সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী রাজি উদ্দিন খানকে কমিটির সদস্য করা হয়।

দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যুর ঘটনায় রবিবার দিবাগত রাতে সিলেট সেনানিবাসের ১৭ পদাতিক ডিভিশনের ৫০ ফিল্ড রেজিমেন্টের সেনা সদস্য মো. আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও দুজনকে আসামি করা হয়।

মামলায় আসামি করা হয়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জামাল অ্যান্ড কোম্পানির মালিক মো. জামাল উদ্দিন, প্রতিষ্ঠানটির সাইট ইঞ্জিনিয়ার আবদুর রাজ্জাক, সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান, তত্ত্বাবধায় প্রকৌশলী আলী আকবর, ক্রেনচালক মো. সাদেক, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপক ও অজ্ঞাত আরও একজন।

সিসিকের তদন্ত কমিটি পুনর্গঠন:

এদিকে সেনাসদস্যের মামলায় সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী আসামি হওয়ার কারণে রবিবার তদন্ত কমিটির পুনর্গঠন করে দেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

আরও পড়ুন: কুমিল্লায় আ.লীগের দুগ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ, মহাসড়ক অবরোধ

পুনর্গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক করা হয় সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্মসচিব) মোহাম্মদ বদরুল হককে। কমিটির সদস্যরা হলেন—সিসিকের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা (নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট) মো. মতিউর রহমান খান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. জয়নাল ইসলাম চৌধুরী, শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল হাকিম, গণপূর্ত অধিদপ্তর সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার রায়, সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) রুহুল আলম ও সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী (সিভিল) রজি উদ্দিন খান।

(ঢাকাটাইমস/০৬জুন/এসএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আদালত এর সর্বশেষ

জেনারেল আজিজের দুর্নীতি অনুসন্ধান চেয়ে হাইকোর্টে রিট

জামিন পেলেন মিল্টন সমাদ্দার

কোটা পদ্ধতি: হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আপিল আজ

দুদকের মামলায় হাজিরা দিতে আদালতে ড. ইউনূস

কোটা পদ্ধতি বাতিলের পরিপত্র অবৈধ: হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ

শুক্রবার ছাড়া রাস্তায় কর্মসূচি-অবরোধ বন্ধে আইনি নোটিশ

ফাঁস প্রশ্নে বিসিএস পাস করে নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের তালিকা প্রকাশে আইনি নোটিশ

ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের আদেশ বহাল

সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মুজিব সাল্ফ স্ট্যান্ডিং কমিটির অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক

কোটা ব্যবস্থা রেখেই পরিবর্তন-পরিবর্ধন করতে পারবে সরকার: হাইকোর্টের রায় প্রকাশ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :