খুবিতে ‘স্টার্টআপ কম্পাস’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

খুবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২১:০৪

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের অধীনে ‘উদ্ভাবন ও উদ্দোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরন (iDea) প্রকল্প’ ‘স্টার্টআপ কম্পাস-বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাক্টিভেশন প্রোগ্রাম-২০২৩’ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইনোভেশন ক্লাবের (কেইউআইসি) পার্টনারশীপে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক লিয়াকত আলী অডিটোরিয়ামে সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন (iDea) প্রজেক্টের পরিচালক ড. মো. মিজানুর রহমান। তিনি বলেন, আগামীতে একটি উন্নত দেশে রুপান্তরের লক্ষ্যে দেশীয় উদ্ভাবক ও উদ্যোক্তাদের জন্য একটি সুগঠিত স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম গঠন করতে এবং দক্ষ জনবল গঠনে তরুণদের এগিয়ে আশার আহ্বান জানান। স্টার্টআপ হওয়ার জন্য সাবজেক্ট কোনো বিষয় না, তোমরা যে সাবজেক্ট থেকেই স্টার্টআপ হতে পারবা। রাষ্ট্রের ব্যয় কমিয়ে দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ইতোমধ্যে, আমরা দেড় শতাধিক স্টার্টআপ ফান্ডিং সম্পন্ন করেছি এবং আগামী ২০২৬ সাল নাগাদ ৫০০ স্টার্টআপ ফান্ডিং করবো।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোহাম্মদ শরীফ হাসান লিমন। তিনি বলেন, চাকরি সেক্টরকে সামনে উন্নতি করতে চাইলে যত উপরে উঠতে চাইব তত রাষ্ট্রের কল্যাণের দিক বিবেচনা করতে হবে। তার জন্য সরকারের ব্যয় কমাতে হবে। বর্তমানে আমাদের শিক্ষার্থীরা বিসিএসের পিছনে ছোটে নতুন কোনো উদ্ভাবনী কাজের পরিবর্তে। সবাই চাকরি করবে নাকি ব্যবসা করবে এসব নিয়ে দ্বিধাদ্বন্ধে থাকে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন খুবির আইসিটি সেলের পরিচালক প্রফেসর ড. কাজী মাসুদুল ইসলাম এবং সয়েল ওয়াটার এন্ড এনভায়রনমেন্টাল ডিসিপ্লিনের প্রধান প্রফেসর মোহাম্মদ সানাউল ইসলাম।

উদ্ভাবনী সেশন শেষে মেন্টরিং সেশনে (iDea) প্রজেক্টের ন্যাশনাল কনসালটেন্ট এ কে আহসানুল আজাদ তার বক্তৃতায় স্টার্টআপদের জন্য দশ লক্ষ্য টাকা ফান্ডিং পাওয়ার শর্তাবলী ও প্রক্রিয়া সম্পর্কিত বিষয়গুলো উপস্থাপন করেন।

এছাড়াও, অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকজন উদ্যোক্তা তাদের বক্তব্য রাখেন। তাদের বক্তব্যে স্টার্টআপদের জন্য বিজনেস আইডিয়া জেনারেট করা, ব্যবসার মৌলিক বিষয় ও ট্যাক্স সম্পর্কিত বিষয় তুলে ধরেন। তারা তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতার প্রেক্ষিতে বিষয়গুলো উপস্থাপন করেন।

উল্লেখ্য, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ইনোভেশন ক্লাব ২০২০ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে চারটি উইং সাইন্স, টেকনোলজি, ফিলোসফি এবং অন্ট্রাপেনিওরশীপ নিয়ে কাজ করছে। ক্লাবটি বেশকিছু ফ্ল্যাগশিপ ইভেন্ট নামিয়েছে যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য INVENTUM, INVENTAM 2.0, Rain your brain তাছাড়াও ভবিষ্যতে (কেইউআইসি) আইডিয়া কম্পিটিশন, ইনোভেশন এক্সপো, অন্ট্রাপ্রেনিওরশিপ ফেয়ার ইত্যাদি নিয়ে কাজ করবে।

(ঢাকাটাইমস/২৬ সেপ্টেম্বর/ইএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিক্ষা এর সর্বশেষ

ঘূর্ণিঝড় নিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে ভুয়া বিজ্ঞপ্তি

আপিলেও বহাল ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্যাম্পাসে অনার্স কোর্স বন্ধের নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের

‘প্রত্যয়’ স্কিমে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের ‘না’

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে জবি অধ্যাপকের মৃত্যু 

ঘূর্ণিঝড়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি মন্ত্রণালয়ের যে নির্দেশনা

ইবিতে ছয় কোটি টাকার অনিয়ম: জড়িতদের শাস্তি নির্ধারণ করতে কমিটি গঠন

‘প্রত্যয়’ স্কিম বাতিলের দাবিতে ঢাবি শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

এ কিউ এম মহিউদ্দিন বৃত্তি পেলেন ঢাবির ভূগোলের ৮ শিক্ষার্থী

ঢাবিতে ক্যানসার সচেতনতায় সিম্পোজিয়াম, অক্সফোর্ড অধ্যাপকের প্রবন্ধ উপস্থাপন

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :