লেখক-শিল্পী-শিক্ষক-সাংবাদিকদের ‘মুক্তির যাত্রা’

খাঁচায় বন্দি ব্যালট বাক্স, কণ্ঠে মুক্তির গান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:৫৬ | প্রকাশিত : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:৩০

বাকস্বাধীনতা রক্ষা ও ভোট দেওয়ার অধিকার রক্ষার দাবিতে খাঁচায় বন্দি ব্যালট বাক্স নিয়ে রাজধানীতে ‘মুক্তির যাত্রা’ করেছেন লেখক-শিল্পী-শিক্ষক-সাংবাদিকরা। ‘কারার ঐ লৌহ কপাট’ ও ‘এই শিকল পরা ছল’সহ মুক্তির গানে গানে এই মিছিল জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে হেঁটে এসেছে শাহবাগ পর্যন্ত।

শুক্রবার অনুষ্ঠিত এই মিছিলে ‘ভোটাধিকার আমার মত প্রকাশেরই অধিকার’ এবং ‘আমার কলম, আমার কণ্ঠ স্তব্ধ করা যাবে না’ এই দুটি বার্তা দেওয়া হয়। পুরো যাত্রাপথে মিছিলটি ঘিরে রেখেছিলো পুলিশ।

এর আগে প্রেস ক্লাবের সামনে এই আয়োজনে যোগ দিয়ে লেখক, শিল্পী, শিক্ষক ও সাংবাদিকরা বলেন, বাংলাদেশ যে দীর্ঘমেয়াদি সংকটের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তা থেকে মুক্তির লক্ষ্যেই এই আয়োজন।

শিল্পী ও চিন্তক অরুপ রাহী বলেন, ‘দেশে জুলুমশাহী কায়েম করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মানুষের স্বাধীনতা লুট করে রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করা হচ্ছে। দুঃখজনক যে এসবই হচ্ছে গণতন্ত্র ও উন্নয়নের নামে।’

লেখক রাখাল রাহা ইতিহাস তুলে ধরে জানান, এদেশেই স্বৈরাচার পতনের আন্দোলন হয়েছে। হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে ক্ষমতা থেকে হটিয়েছে দেশের স্বর্বস্তরের মানুষ। জনগণের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলেন দেশের বুদ্ধিজীবীরা, মুক্তচিন্তার লেখক ও শিল্পীরা। অথচ দেশের বর্তমান শিক্ষক, লেখক ও শিল্পীদের একটা বড় অংশই ক্ষমতার পক্ষে দাঁড়িয়ে দেশকে পেছনে নিয়ে যাচ্ছেন। এ থেকে দায় মুক্তির লক্ষ্যে সংখায় সীমিত হলেও মুক্তচিন্তা ও সচেতন সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন রাখাল রাহা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে অধ্যাপক আসিফ নজরুল বলেন, ‘দেশের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে পুলিশ, প্রশাসন এবং নির্বাচন কমিশন, আদালতসহ সব সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো স্বাধীনতা কেড়ে নিয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। এভাবে আরও চলতে থাকলে সংবিধানকে রক্ষা করা যাবে না। মুক্তির আর কোনো পথ খুঁজে পাবে না এই সংবিধান ও রাষ্ট্রের মালিক দেশের মানুষ।’

প্রতিহিংসার রাজনীতির মধ্য দিয়েই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্বৈরতন্ত্রের উত্থান হয়েছে বলেও মত দিয়েছেন অধ্যাপক আসিফ নজরুল।

এই ‘মুক্তির যাত্রা’য় আরও ছিলেন শিল্পী অমল আকাশ, সংগীত শিল্পী বিথী ঘোষ এবং ফারজানা ওয়াহিদ শায়ান, বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকসহ আরও অনেকে।

(ঢাকাটাইমস/৮নভেম্বর/এসআরপি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

ওপারে আবার গোলাগুলি, বিকট শব্দে কাঁপল শাহপরীর দ্বীপ

বিচার বিভাগের স্বচ্ছতা নিশ্চিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ সরকার: রাষ্ট্রপতি

পায়ুপথে স্বর্ণ পাচারের চেষ্টা, পেট্রাপোল বন্দরে তিন বাংলাদেশি আটক

বিশ্ব কুরআন প্রতিযোগিতায় বিরল রেকর্ড বাংলাদেশি হাফেজ বশিরের

বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমতি ভারতের

প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় কুমিল্লা ও ময়মনসিংহ মেয়র প্রার্থীরা

রাজধানীজুড়ে আরও পাঁচটি মেট্রোরেল করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

ট্র্যাফিক সিগন্যাল লাইটগুলো চালু করতে আইজিপিকে নির্দেশ দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রথমবারের মতো আমদানি করা হলো ৫০ মেট্রিক টন নারিকেল

নির্বাচন নিয়ে জার্মানি সফরে কেউ প্রশ্ন তোলেনি: প্রধানমন্ত্রী 

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :