উইল জ্যাকসের সেঞ্চুরিতে বিপিএলে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড কুমিল্লার

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭:০৪ | প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:২৩

চলতি বিপিএলে আরও এক সেঞ্চুরি উপভোগ করলো ক্রিকেটপ্রেমীরা। মজার ব্যাপার হলো চলতি আসরের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছিলেন কুমিল্লার তাওহীদ হৃদয় আর দ্বিতীয় সেঞ্চুরিটি তুলে নিলেন কুমিল্লার উইল জ্যাকস। সেঞ্চুরিতে ভর করে স্বাগতিক চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের সামনে রানের পাহাড় দাঁড় করিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৩৯ রান সংগ্রহ করেছে কুমিল্লা। যা বিপিএল ইতিহাসে যৌথভাবে সর্বোচ্চ দলীয় রানের রেকর্ড। এর আগে ২০১৯ সালে চট্টগ্রাম ভাইকিংসের বিপক্ষে একই সংগ্রহ পায় রংপুর রাইডার্স। ভিক্টোরিয়ান্সদের হয়ে সর্বোচ্চ অপরাজিত ১০৮ রান করেছেন জ্যাক। তাছাড়া ফিফটি পেয়েছেন লিটন ও মঈন আলী।

চট্টগ্রাম পর্বে আজ কুমিল্লার হয়ে ওপেনিংয়ে নামেন লিটন দাস ও উইল জ্যাকস। ক্রিজে নেমেই চট্টগ্রামের বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালাতে থাকেন তারা। ট্টগ্রামের বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালিয়ে আজ লিটন দাস ২৬ বলেই তুলে নেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক।

অনেক চেষ্টা করেও এই জুটিকে ভাঙতে পারেছিলেন না চট্টগ্রামের বোলাররা। অবশেষে এই জুটিকে থামান শহিদুল ইসলাম। শহিদুলের বলে অর্ধশতক তুলে নেওয়া লিটন ডিপ মিড উইকেটে কার্টিস ক্যাম্ফারের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে গেলে ৮৬ রানে ভেঙে যায় এই জুটি। আউট হওয়ার আগে করেন ৩১ বলে ৬০ রান।

লিটন দাসের পর একই ওভারে সাজঘরে ফিরে যান আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া তাওহীদ হৃদয়। শহিদুলের বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে শূন্য রানেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি।

তাওহীদ হৃদয়ের পর ব্রুক গেস্টকে নিয়ে জুটি বাঁধেন উইল জ্যাকস। এই জুটিতে ভর করে ৯ ওভার ৩ বলেই দলীয় শতক পূর্ণ করে কুমিল্লা। তবে ভয়ঙ্ক হয়ে ওঠার আগেই এই জুটিকে থামান সৈকত আলী। সৈকত আলীর বলে নিহাদুজ্জামানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান উইল জ্যাকস। তার বিদায়ে ১১১ রানে ৩ উইকেট হারায় কুমিল্লা।

১১১ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর জুটি গড়েন উইল জ্যাকস ও মঈন আলী। চট্টগ্রামের বিপক্ষে আজ সেঞ্চুরি তুলে নেন উইল জ্যাকস। ৩১ বলে অর্ধশতক তুলে নেওয়ার পর ৫০ বলে তুলে নেন সেঞ্চুরি। উইল জ্যাকসের সেঞ্চুরির পর ব্যক্তিগত অর্ধশতক তুলে নেন মঈন আলীও। চট্টগ্রামের বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালিয়ে ২৩ বলে অর্ধশতক তুলে নেন তিনি।

এই জুটির ৫৩ বলে ১২৮ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে চলতি আসরের সর্বোচ্চ ২৩৯ রান তুলে কুমিল্লা। বিপিএল ইতিহাসে যৌথভাবে সর্বোচ্চ দলীয় রানের রেকর্ড। এর আগে ২০১৯ সালে চট্টগ্রাম ভাইকিংসের বিপক্ষে একই সংগ্রহ পায় রংপুর রাইডার্স।উইল জ্যাকস ৫৩ বলে ১০৮ ও মঈন আলী ২৪ বলে ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন।

(ঢাকাটাইমস/১৩ ফেব্রুয়ারি/এনবিডব্লিউ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

খেলাধুলা এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :