বণিক বার্তার কাওছার হত্যামামলা: মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পেডি ৯ বছর পর গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:৪৩ | প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:১৫

রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকায় দৈনিক বণিক বার্তার বিজ্ঞাপন বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর আলম কাওছার (৩৮) হত্যামামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি এ এম এম ফয়সাল ওরফে পেডিকে (৩১) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর তুরাগ থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মঙ্গলবার র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সিনিয়র এএসপি শিহাব করিম এ তথ্য জানান।

ফয়সাল মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার মাহতাব উদ্দিনের ছেলে। তিনি ৯ বছর ধরে পলাতক ছিলেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ভিকটিম জাহাঙ্গীর আলম কাউছার বণিক বার্তা পত্রিকার বিজ্ঞাপন বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ঘটনার দিন ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টার দিকে বাসা থেকে মোটরসাইকেলযোগে অফিসের উদ্দেশ্যে বের হন তিনি। অফিসের কাজ শেষ করে বাসায় ফেরার সময় হলেও ভিকটিমের বাসায় আসতে দেরি দেখে তার স্ত্রী মোবাইলে কল করলে ফোন বন্ধ পাওয়ায় তার অফিসসহ আত্মীয়স্বজনদের বাসায় যোগাযোগ করেন। কোথাও সন্ধান না পাওয়ায় ভিকটিমের স্ত্রী তেজগাঁও থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি করেন।

র‌্যাব জানিয়েছে, ঘটনার তিন দিন পর ১৮ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টার দিকে কাউছারের স্ত্রী লোক মারফত জানতে পারেন, খিলক্ষেতের নামাপাড়া বোডঘাট এলাকায় ৩৫-৩৬ বছর বয়সের একজন অজ্ঞাতনামা পুরুষের লাশ একটি বাড়ির ৫ম তলায় লাগেজের মধ্যে রয়েছে। ভিকটিমের স্ত্রী খিলক্ষেত থানা পুলিশের সহায়তায় ওই বাড়িটির ৫ম তলায় ফ্লাটের রুমের ভেতর লাগেজ থেকে গলায় বৈদ্যুতিক তার প্যাঁচানো ও চোখ গামছা দিয়ে বাঁধা, সারা শরীর ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় তার স্বামীর লাশ শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় নিহত জাহাঙ্গীরের স্ত্রী খিলক্ষেত থানায় এ এম এম ফয়সাল ওরফে পেডিকে প্রধান আসামি ও ৩-৪ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার পর থেকেই আসামি পলাতক ছিলেন।

পরবর্তী সময়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে এ এম এম ফয়সাল পেডির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেন। আদালত বিচারকার্য শেষে আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেন। তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর থেকে আসামি ফয়সাল দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন করে ছিলেন। তাকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে র‌্যাব-২ এর একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব সদর দপ্তর গোয়েন্দা শাখা ও র‌্যাব-২ অভিযান পরিচালনা করে সোমবার সন্ধ্যা ৮টা ১০ মিনিটের দিকে রাজধানীর তুরাগ থানা এলাকা হতে তাকে গ্রেপ্তার করে।

উল্লেখ্য, এ মামলা ছাড়াও আসামি ফয়সাল পেডির নামে দুটি হত্যা মামলা এবং একটি বিস্ফোরক আইনের মামলা রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৭ফেব্রুয়ারি/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

অপরাধ ও দুর্নীতি এর সর্বশেষ

পল্লবীতে পাভেল হত্যা: নেপথ্যে মাদক ব্যবসা, গ্রেপ্তার ৮

মাদক-ইয়াবা কারবারে বদির দুই ভাইয়ের সংশ্লিষ্টতা পেয়েছে সিআইডি

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের হটলাইন থেকে গ্রাহককে ফোন, অ্যাকাউন্টের টাকা হাওয়া

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৮, মামলা ৬

ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি গ্রেপ্তার 

এটিএম বুথের প্রহরী হত্যা: টাকা লুটের উদ্দেশ্যে নাকি ব্যক্তিগত কারণ? কী বলছে পুলিশ?

রাজধানীতে এটিএম বুথের নিরাপত্তাকর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

কেএনএফকে সহযোগিতা, বান্দরবান থেকে একজন গ্রেপ্তার

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে কিশোর গ্যাংয়ের হামলার শিকার সেই চিকিৎসকের মৃত্যু

রাষ্ট্রপতির আত্মীয় পরিচয়ে প্রতারণা, নিঃস্ব বহু ট্রাভেল ব্যবসায়ী

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :