মানব স্বাস্থ্যের ওপর খোলা ভোজ্যতেলের ক্ষতিকর প্রভাব নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:৩১

জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের আয়োজনে মানব স্বাস্থ্যের ওপর খোলা ভোজ্যতেলের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে ভোক্তা ও বাল্ক ব্যবহারকারীদের সচেতনতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত অংশগ্রহণে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি এর সভাকক্ষে এই কর্মশালা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এ. এইচ. এম. সফিকুজ্জামান।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের বিভাগীয় প্রধান (রোগতত্ত্ব ও গবেষণা) প্রফেসর সোহেল রেজা চৌধুরী ও কনসাল্টেন্ট মুশতাক হাসান মুহ. ইফতিখার এবং সোহেল আক্তার, পরিচালক, নারায়ণগঞ্জ জেলা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক (কার্যক্রম ও গবেষণাগার) ফকির মুহাম্মদ মুনাওয়ার হোসেন।

আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালকগণ ও সহকারী পরিচালকগণ, নারায়ণগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধিবৃন্দ, ভোক্তা সাধারণ এবং অংশীজনসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

স্বাগত বক্তব্যে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এর প্রজেক্ট ম্যানেজার ড. রীনা রাণী পাল কর্মশালায় উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, অনুপুষ্টি সংযুক্তকরণের মাধ্যমে ভিটামিন-এ ও ভিটামিন-ডি এর ঘাটতি পূরণের লক্ষ্যে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ কাজ করে যাচ্ছে। এই কর্মশালা, ভোক্তা সাধারণসহ উপস্থিত সদস্যগণের মধ্যে এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে মাইলফলক হয়ে থাকবে মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে তাঁর বক্তব্য শেষ করেন।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ বিষয়ে একটি পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জনাব জান্নাতুল ফেরদাউস।

খোলা ভোজ্য তেলের ক্ষতিকর দিক ও সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম বন্ধের লক্ষ্যে করণীয় বিষয়ে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের কনসাল্টেন্ট মুশতাক হাসান মুহ. ইফতিখার।

কর্মশালায় অধিদপ্তর কর্তৃক খোলা ভোজ্য তেল বিষয়ে পরিচালিত তদারকি কার্যক্রম ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম সম্পর্কে একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক সোহেল আক্তার অধিদপ্তরের সার্বিক কার্যক্রমের প্রসংশা করে বলেন, অধিদপ্তরের সক্ষমতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। তিনি ব্যবসায়ীদের নৈতিকতা ও ধর্মীয় অনুশাসন মেনে ব্যবসা করার অনুরোধ জানান।

কর্মশালায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বিল্লাল হোসেন উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বাজার কমিটিকে সম্পৃক্ত করে উন্মুক্ত স্থানে এ ধরনের অ্যাডভোকেসি কর্মশালা আয়োজনের অনুরোধ জানান।

কর্মশালায় ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের বিভাগীয় প্রধান (রোগতত্ত্ব ও গবেষণা) প্রফেসর সোহেল রেজা চৌধুরী বলেন, ভোক্তা সচেতন হলে তাঁদের অধিকার বাস্তবায়নের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

তিনি আরও বলেন, জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় এ ধরনের কর্মশালা অত্যন্ত গুরুত্ব বহন করে। তিনি যার যার অবস্থান থেকে এই কর্মশালার মূল মেসেজ পৌঁছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানান।

আলোচনায় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক তাঁর বক্তব্যের শুরুতে ভাষা শহীদ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের শহীদ সকল সদস্যদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ, জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, জেলা চেম্বারসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি অধিদপ্তরের নিয়মিত কার্যক্রম বাজার তদারকি, অভিযোগ নিষ্পত্তি ও সচেতনতামূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি অধিদপ্তরের হটলাইন ১৬১২১, অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেল এবং সিসিএমএস সফটওয়্যারের মাধ্যমে অভিযোগ নিষ্পত্তির বিষয়ে সম্যক ধারনা প্রদান করেন।

তিনি বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণে কাজ করে যাচ্ছি কিন্তু এই ক্ষেত্রে সফল হতে হলে প্রয়োজন ভোক্তাদের সচেতনতা ও সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা। এই সচেতনতার অংশ হিসেবে আয়োজন করা হয়েছে এই কর্মশালা।

পরিশেষে তিনি কর্মশালার লক্ষ্য বাস্তবায়নে জনস্বার্থ বিবেচনায় খোলা ভোজ্য তেল পরিহার করার আন্দোলনে সকলে মিলে সম্মিলিত ভাবে কাজ করবেন মর্মে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এরপর মুক্ত আলোচনায় অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে মহাপরিচালক কর্মশালায় আগত অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।

পরিশেষে কর্মশালার সভাপতি ও অধিদপ্তরের পরিচালক ফকির মুহাম্মদ মুনাওয়ার হোসেন বলেন, আজকের কর্মশালা যথেষ্ট অংশগ্রহণমূলক হয়েছে। তিনি আমন্ত্রিত অতিথিসহ ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ, জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে কর্মশালার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

কর্মশালা শেষে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কর্তৃক নারায়ণগঞ্জ জেলার নিতাইগঞ্জ বাজারে খোলা ভোজ্য তেল বিষয়ে সচেতনতামূলক তদারকি কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

ঢাকাটাইমস/২৮ফেব্রুয়ারি/এমএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

পশুর হাট যততত্র বসিয়ে জনদুর্ভোগ না করার আহ্বান সেতুমন্ত্রীর

নিরাপত্তা বিশ্লেষক আব্দুর রশীদ মারা গেছেন

ছয় অঞ্চলের ৬০ কিমি বেগে ঝড়ের আশঙ্কা, নদীবন্দরে সতর্ক সংকেত

প্রতি ১০ শিশুর ৯ জনই নিজ পরিবারে সহিংসতার শিকার: ইউনিসেফ

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা, উপনেতাকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা

বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ইউএইর বিনিয়োগ চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

ঈদে ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তায় প্রস্তুত ফায়ার সার্ভিস

সরকারি জায়গা দখল: অবশেষে হোটেল ওলিও থেকে ৮০ কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধার

ঈদে রেলসেবায় এবারও ‘গোল্ডেন এ প্লাস’ পাওয়ার আশা জিল্লুল হাকিমের

কমিউটার ট্রেনের টিকিটের জন্য হাহাকার, ভোগান্তির শেষ নেই

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :