পুনর্বাসন ছাড়া মিরনজিল্লা কলোনিতে উচ্ছেদের প্রতিবাদ জোনায়েদ সাকির

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ জুন ২০২৪, ১৮:৩৯

রাজধানীর বংশালের মিরনজিল্লা কলোনিতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের উচ্ছেদ অভিযানের শিকার হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে সংহতি জানিয়েছেন গণসংহতি আন্দোলনের নেতারা।

দলটির প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকির নেতৃত্বে গণসংহতি আন্দোলনের একটি প্রতিনিধিদল বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় মিরনজিল্লা কলোনিতে উপস্থিত হয়ে অবিলম্বে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধের দাবি জানান।

মিরনজিল্লা কলোনিতে উপস্থিত হয়ে গণসংহতি আন্দোলনের নেতারা হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষকে উচ্ছেদ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আধুনিক কাঁচাবাজার তৈরির সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার বহু আগে থেকেই অর্থাৎ যখন পৌরসভা ছিল তখনও হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষেরা ঢাকা শহরের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজে যুক্ত ছিল।

যুগ যুগ ধরে তারা এ শহরকে পরিষ্কার রেখে নিজেদের পেশাগত দায়িত্ব পালন করে আসছে। দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নিজস্ব যায়গায় বংশানুক্রমে হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন আছে।

আজকে আধুনিক মার্কেট নির্মাণের নাম করে তাদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। আমরা অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানাই; পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করে একটা পরিবারকেও উচ্ছেদ করা চলবে না।

মিরনজিল্লা কলোনিতে বসবাসরতদের নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধির দাবি জানিয়ে জোনায়েদ সাকি আরও বলেন, ঢাকা শহরে নাগরিকদের জীবনকে সুন্দর করতে যারা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন, তারা অত্যন্ত অমানবিক পরিবেশে জীবন-যাপন করেন। নাগরিক হিসেবে তাদের ন্যূনতম যে অধিকার, তা থেকেও তারা বঞ্চিত। আমরা ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে অবিলম্বে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করে কীভাবে কলোনিতে নাগরিক সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করা যায়, সেদিকে নজর দেবার দাবি জানাই। আর তারা যদি সেদিকে নজর না দিয়ে গায়ের জোরে উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রাখে, আমরা তার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলব।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রতিনিধিদলে আরও উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য মনির উদ্দীন পাপ্পু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভূইয়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ গণসংহতি আন্দোলনের সদস্য সচিব মো. সেলিমুজ্জামান, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মশিউর রহমান খান রিচার্ড প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/১৩জুন/জেবি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :