খ্যাতিমান অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদের চলে যাওয়ার দুই বছর

বিনোদন প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:৩৫ | প্রকাশিত : ০৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:২৯

দেশবরেণ্য জনপ্রিয় অভিনেত্রী শর্মিলী আহমেদের মৃত্যুর দুই বছর হয়ে গেল। ২০২২ সালের ৮ জুলাই সকালে রাজধানীর উত্তরায় নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি পাওয়া এই গুণী অভিনেত্রী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন।

৮ জুলাই বিকালে বাদ আসর দ্বিতীয় জানাজা শেষে শর্মিলী আহমেদকে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়। এর আগে জুমার নামাজের পর উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টর মসজিদে অনুষ্ঠিত হয় তার প্রথম জানাজা।

শর্মিলী আহমেদের প্রকৃত নাম মাজেদা মল্লিক। ১৯৪৭ সালের ৮ মে তার জন্ম। তিনি অভিনয় শুরু করেন মাত্র চার বছর বয়স থেকে। রাজশাহী বেতারের শিল্পী ছিলেন। ষাটের দশকে চলচ্চিত্রাঙ্গনে নাম লেখান। এর মধ্যে অবশ্য উর্দু ভাষায় নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘ঠিকানা’ আলোর মুখ দেখেনি। তবে সুভাষ দত্তের ‘আলিঙ্গন’, ‘আয়না ও অবশিষ্ট’ এবং ‘আবির্ভাব’ চলচ্চিত্র দিয়ে সুপরিচিত হয়ে ওঠেন।

শর্মিলী আহমেদের স্বামী রকিবউদ্দিন আহমেদ ছিলেন পরিচালক। তার নির্মিত ‘পলাতক’ সিনেমাতে অভিনয় করেছেন শর্মিলী আহমেদ। স্বাধীনতা পূর্ববর্তী সময়ে আরও কিছু উর্দু সিনেমাতেও তিনি অভিনয় করেন। স্বাধীনতার পর ‘রূপালী সৈকতে’, ‘আগুন’, ‘দহন’-এর মতো জনপ্রিয় সব চলচ্চিত্রে ছিল তার সরব উপস্থিতি।

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে প্রায় ৪০০ নাটক ও ১৫০টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন শর্মিলী আহমেদ। অভিনয়জীবনে মঞ্চ, টিভি ও চলচ্চিত্রের বৈচিত্র্যপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। সবার মন জয় করেছেন সাবলীল অভিনয় দিয়ে। তিনি বাংলাদেশের প্রথম ধারাবাহিক নাটক ‘দম্পতি’-তে অভিনয় করেছেন।

১৯৭৬ সালে মোহাম্মদ মহসিন পরিচালিত ‘আগুন’ সিনেমায় মায়ের ভূমিকায় প্রথম অভিনয় করেন। সেই থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি নিরলসভাবে মমতাময়ী মা চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এই চরিত্রে এত বেশি অভিনয় করেছেন যে, বিনোদন অঙ্গনে তিনি সবার কাছে ‘মা’ হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। সবাই তাকে ‘শর্মিলী মা’ বলেই ডাকতেন।

(ঢাকাটাইমস/০৮জুলাই/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :