জবিতে ভর্তির আবেদন ৫ আগস্ট, পরীক্ষা ২৯ সেপ্টেম্বর

জবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০২ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৫৫

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের চার বছর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) ও বিবিএ ১ম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু হবে ৫ আগস্ট। এদিন বেলা ১২টা থেকে ২৭ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত প্রাথমিক আবেদন করা যাবে। আর ভর্তি পরীক্ষা ২৯ সেপ্টেম্বর।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তর থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যে সকল শিক্ষার্থী ২০১৫ বা ২০১৬ সালে এসএসসি/সমমান এবং ২০১৮ সালে এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ তারা ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

এবার তিনটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিট-১ (বিজ্ঞান শাখা)-৮২৫টি, ইউনিট-২ (মানবিক শাখা)- ১,২৭০টি, ইউনিট-৩ (বাণিজ্য শাখা)- ৫২০টি এবং বিশেষায়িত চারটি বিভাগসহ (সংগীত, চারুকলা, নাট্যকলা এবং ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন বিভাগ- মোট ১৫০টি) সর্বমোট দুই হাজার ৭৬৫টি আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করার যোগ্যতা:

এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় ইউনিট-১ (বিজ্ঞান শাখা)-এর জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৮.০ (তবে কোনো পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ ৩.০ এর নীচে নয়), ইউনিট-২ (মানবিক শখা)-এর জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৭.৫ (তবে কোনো পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ ৩.০ এর নীচে নয়) এবং ইউনিট-৩ (বাণিজ্য শাখা)-এর জন্য ন্যূনতম জিপিএ ৮.০ (তবে কোনো পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ ৩.০ এর নীচে নয়) থাকতে হবে।

বিশেষায়িত বিভাগে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের মোট জিপিএ ৭.০ (তবে কোনো পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ ২.৫ এর নীচে নয়) থাকতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করার পদ্ধতি:

ইউনিট-১ (বিজ্ঞান শাখা), ইউনিট-২ (মানবিক শাখা) ও ইউনিট-৩ (বাণিজ্য শখা)-তে আবেদন করার জন্য জবির ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করতে হবে। ৫ আগস্ট বেলা ১২টা থেকে ২৭ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত প্রাথমিক আবেদন করতে পারবে। প্রাথমিকভাবে আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এবং এইচএসসি পরীক্ষায় প্রাপ্ত মোট নম্বরকে (৪র্থ বিষয়সহ) ভিত্তি করে লিখিত পরীক্ষার জন্য প্রথম ত্রিশ হাজার যোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা (পরীক্ষার্থীর নাম ও রোল নম্বরসহ) প্রস্তুত করা হবে, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে এবং পরীক্ষার্থীদের প্রদানকৃত মোবাইল নম্বরে মেসেজের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। এই শর্ত পোষ্য কোটাসহ সকল কোটার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে।

প্রাথমিকভাবে বাছাইকৃত শিক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষার জন্য সার্ভিস চার্জসহ ৫০৫/- টাকা ৩১ আগস্ট বেলা ১২টা থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত জমা দিতে হবে। পরে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে।

বিশেষায়িত বিভাগসমূহ:

বিশেষায়িত বিভাগসমূহের (সংগীত, চারুকলা, নাট্যকলা এবং ফিল্ম এন্ড টেলিভশন বিভাগ) জন্য কোন লিখিত পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না। শুধু বিষয়ভিত্তিক ব্যবহারিক এবং  মৌখিক ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার রোল নম্বর, শিক্ষা বোর্ড, পাসের সন এবং নিজের মোবাইল নম্বরসহ প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে হবে এবং আবেদনের যোগ্য বিবেচিত হলে আবেদনকারীকে একটি মেসেজ দেয়া হবে। একজন শিক্ষার্থীরা বিশেষায়িত এই চারটি প্রতিটি বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা আলাদাভাবে আবেদন করতে পারবেন।

এছাড়া বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি), ইংলিশ মিডিয়াম অথবা বিদেশ থেকে এইচএসসি/সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ৫ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত (অফিস চলাকালীন সময়ে) কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সদস্য-সচিব (রেজিস্ট্রার)-এর অফিসে যোগাযোগ করে নির্ধারিত আবেদন ফরম সংগ্রহ করে আবেদন করতে পারবেন।

ইউনিট-১-এর ভর্তি পরীক্ষা ২৯ সেপ্টেম্বর (শনিবার), ইউনিট-২-এর ভর্তি পরীক্ষা ৬ অক্টোবর (শনিবার), ইউনিট-৩-এর ভর্তি পরীক্ষা ১৩ অক্টোবর (শনিবার) সকাল (১০.০০টা হতে ১১.৩০টা) এবং বিকাল (৩.০০টা হতে ৪.৩০টা) দুটি শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও বিশেষায়িত বিভাগসমূহের ব্যবহারিক এবং মৌখিক পরীক্ষা ২৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে। ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে পাওয়া যাবে।

(ঢাকাটাইমস/ ২আগস্ট/ আইএইচ/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :