‘স্বামীর দেয়া আগুনে’ প্রাণ গেল গৃহবধূর

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ২১:৩৯

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে স্বামীর দেয়া আগুনে আহত রোজিনা বেগম তিন দিন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর শনিবার মারা গেছেন। এ ঘটনায় স্বামী আব্দুল্ল্যাহকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (৮ এপ্রিল) রাত সন্ধ্যা ৭টার দিকে পাটগ্রাম পৌরসভার নিউপূর্বপাড়া এলাকার এ ঘটনা ঘটে।

স্বামী আব্দুল্ল্যাহ পাটগ্রাম উপজেলার নিউ পূর্বপাড়া এলাকার মোমিন মিয়ার ছেলে।

গৃহবধূ রোজিনা বোগম পাশ্ববর্তী জেলা নীলফামারী জেলার জলঢাকা এলাকার মেয়ে।

স্থানীরা জানান, প্রতিদিনেই গৃহবধূ রোজিনাকে নির্যাতন করে স্বামী আবদুল্ল্যাহ। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রোজিনা তার স্বামীকে জানায় যে তার বাড়িতে কয়েকজন আত্মীয় আসবে। এ কথা শুনে মোবাইলে রোজিনাকে গালাগালি করে। ঘণ্টাখানেক পর বাড়িতে এসেই রোজিনার চুলের মুঠি ধরে মারধর শুরু করে স্বামী। পরে ঘরের ভেতর থেকে কেরোসিনের বোতল এনে ঢেলে দেয় রোজিনার শরীরে। আগুন ধরিয়ে দিলে রোজিনার গলাসহ তার শরীর পুড়ে যায়।

রোজিনার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এলে স্বামী আব্দুল্ল্যাহ পালাতে চেষ্টা করেন। এসময় স্থানীরা তাকে আটক করে পুলিশে খরর দেয়। পরে রোজিনাকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করালে রোজিনা বেগমের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ পাঠানো পাঠায়।

পাটগ্রাম থানার ওসি মনসুর আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওই গৃহবধুর স্বামী আব্দুল্ল্যাহকে আটক করা হয়েছে। এই ঘটনায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

(ঢাকাটাইমস/১৩এপ্রিল/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :