শাবি ক্যাম্পাস পরিচ্ছন্ন রাখতে ৯০টি ডাস্টবিন

শাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৫

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য প্রশাসনের উদ্যোগে ৯০টি ‘গার্বেজ বিন’ উদ্বোধন করা হয়েছে।

রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ভবনের সামনে ‘ক্লিন সাস্ট মুভমেন্ট’ এর ব্যানারে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ গার্বেজ বিনগুলো উদ্বোধন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইএমএলের পরিচালক অধ্যাপক ড. আলমগীর তৈমুর, আইকিউএসির পরিচালক অধ্যাপক ড. আশরাফুল আলম, অতিরিক্ত পরিচালক অধ্যাপক আনোয়ারুল হোসেন, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রাজন দাস, সহকারী অধ্যাপক মিজানুর রহমান, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাটের সহকারী কমিশনার আহমেদুর রেজা চৌধুরী প্রমুখ।

উদ্বোধনের সময় প্রধান অতিথি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়কে বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর, পরিচ্ছন্ন এবং সেরা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। উন্নত দেশগুলোতে যেখানে-সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলা যায় না। সেখানে গেলে আমরাও কোন ধরনের ময়লা ফেলি না। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়েও সে রকম বিষয় চর্চা করা হবে, সম্পূর্ণ বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি নিয়ম-শৃঙ্খলায় নিয়ে আসার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার পর প্রায়ই সকালে দেখেছি অধ্যাপক ড. আলমাগীর তৈমুরের নেতৃত্বে একদল শিক্ষার্থী ক্যাম্পাস পরিষ্কার করছে। তাদের কাজ দেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে গার্বেজ বিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আপাতত ৯০টি বিন দেওয়া হয়েছে সামনে চাহিদা অনুযায়ী ক্যাম্পাসে আরও বিন দেওয়া হবে। আর ময়লা বিন ফেলার জন্য সবাই উদ্বোদ্ধ করতে হবে। সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে এগিয়ে আসলে বিশ্ববিদ্যালয়কে সম্পূর্ণরুপে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা সম্ভব।

অধ্যাপক ড. আলমগীর তৈমুর বলেন, গত বছর কয়েকজন শিক্ষার্থী নিয়ে ক্ষুদ্র পরিসরে ক্যাম্পাস পরিষ্কারের কাজ শুরু করি। আমাদের এই কাজটি বিশ্ববিদ্যালয়ের নজরে আসায় এখন ৯০টি বিন দেওয়া হয়েছে। এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে জাতীয়ভাবেও প্রভাব ফেলা সম্ভব। অন্যান্য জায়গাতেও এটা শুরু করা যায়। আমাদের কাজে বিশ্ববিদ্যালয় সহযোগিতা করায় প্রশাসনকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে অধ্যাপক ড. আলমগীর তৈমুরের নেতৃত্বে একদল শিক্ষার্থী সপ্তাহে ২/৩ দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবন এবং রাস্তা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা শুরু করে। প্রথম দিকে বিচ্ছিন্নভাবে হলেও পরিবর্তীতে প্রতি রবিবার, মঙ্গলবার ও শুক্রবার সকালে ক্যাম্পাস পরিষ্কারের দিন নির্ধারণ করা হয় এবং এই কর্মসূচির নাম দেওয়া হয় ‘ক্লিন সাস্ট মুভমেন্ট’। পরবর্তীতে ইংরেজি বিভাগের ২য় ও ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে ২৭টি গার্বেজ বিন স্থাপন করা হয়। এখন দুই ধাপে সর্বমোট ১১৭টি গার্বেজ বিন স্থাপন করা হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/২১জুলাই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :