ডেঙ্গু মোকাবিলায় অবদানের জন্য স্থানীয় সরকারমন্ত্রীকে সম্মাননা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ আগস্ট ২০১৯, ২৩:১৯

‘ডেঙ্গু রোগ মোকাবিলায় সর্বাত্মক চেষ্টার জন্য’ স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলামকে সম্মাননা স্মারক দিয়েছে একটি সংগঠন।

আজ শুক্রবার এফডিসিতে ‘শুধু সরকারি প্রচেষ্টা নয়, জনসচেতনতাই পারে ডেঙ্গু প্রতিরোধ’ শীর্ষক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি ছিলেন মন্ত্রী। অনুষ্ঠানের শেষে তার হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন বিতর্কের আয়োজক প্রতিষ্ঠান ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।

মন্ত্রীকে সম্মাননা স্মারক দেওয়ার বিষয়ে কিরণ বলেন, ‘ডেঙ্গু মোকাবেলায় তিনি (মন্ত্রী) সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। মেয়র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে নিয়ে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই। কিন্তু এলজিআরডি মন্ত্রী ডেঙ্গু মোকাবেলায় সর্বাত্মক চেষ্টা ও প্রশাসনিকভাবে সহযোগিতা করেছেন।’

সম্মাননা স্মারক গ্রহণের অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী  ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসায় বাংলাদেশের সফলতার চিত্র তুলে ধরেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে তিনি বলেন, এই রোগ মোকাবেলায় উন্নত দেশগুলোর চেয়ে বাংলাদেশের সক্ষমতা বেশি।

এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু রোগ বাংলাদেশে প্রথম দেখা দেয় ২০০০ সালে। এর পর থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ১৮ বছরে ৫০ হাজার ১৪৮ জন মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়। এ বছর গত ছয় মাসে এই রোগে আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে।

প্রায় দেড় দশক নিয়ন্ত্রণে থাকা ডেঙ্গু রোগ এবার ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়ার জন্য সিটি করপোরেশনের মশা নিধন কার্যক্রমে অবহেলার   অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

গত জুনে ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হওয়ার মাস দেড়েক পর সমালোচনার মুখে তৎপর হয় সরকারি সংস্থাগুলো। তবে বরাবরই সমালোচনা নাকচ করে দেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী। তাবি দাবি ছিল, বাংলাদেশে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা এশিয়ার অনেক দেশের তুলনায় কম।

আজকের অনুষ্ঠানেও মন্ত্রী জানান, দেশে ডেঙ্গু পরিস্থিতি আগের তুলনায় ভালো। বিশ্বের অন্যান্য উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশের ডেঙ্গু মোকাবেলার সক্ষমতা বেশি দাবি করে মন্ত্রী বলেন, ‘ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের একজন প্রতিনিধি আমাকে বলেছেন, ডেঙ্গু রোগ মোকাবিলার সক্ষমতায় উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশ এগিয়ে আছে।’

এ বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৪৭ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তবে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত বেসরকারি হিসাবে মৃত্যুর সংখ্যা শতাধিক।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ২২ আগস্ট সকাল আটটা থেকে ২৩ আগস্ট সকাল আটটা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৪১১ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আর একজন  শিশুর মৃত্যুর তথ্য জানা গেছে গণমাধ্যমে।

(ঢাকাটাইমস/২৩আগস্ট/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :