আলফাডাঙ্গায় আগ্রাসী মধুমতী, সড়কের একাংশ বিলীন

মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৫৫

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার টগরবন্দ ইউনিয়নে মধুমতী নদী আগ্রাসী হয়ে উঠেছে। পানি কমলেও থামছে না ভাঙন। বাড়িঘর, গাছপালা, ফসলি জমি বিলীন হয়েছে নদীতে। অনেক জায়গায় সড়ক বিলীন হয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে ইউনিয়নের চাপুলিয়া আশ্রয়ন প্রকল্পের অনেকাংশ নদীতে চলে গেছে। ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে- শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মসজিদ, মাদ্রাসা, খেলার মাঠ, বাড়িঘরসহ বিভিন্ন স্থাপনা।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, বাজড়া-চরডাঙ্গা ওই সড়কের চরআজমপুর এলাকার একটি অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। বিলীন হওয়া ওই অংশ প্রস্থে আনুমানিক ৯ ফুট, দৈর্ঘ্যে ২৫ ফুট। ভাঙনের হুমকিতে রয়েছে আরও ৫০টি পরিবারের ভিটেমাটি। এখান থেকে আনুমানিক ১০০ গজ দূরেই বাজড়া চরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার দিনগত রাত থেকে রাস্তার ভাঙন শুরু হয়েছে। নদীগর্ভে সড়কের একাংশ বিলীন হয়ে যাওয়ায় যোগাযোগও বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। বাড়িঘরের মধ্য দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে সবাইকে।

বাজড়া চরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদা ইয়াসমিন ঢাকাটাইমসকে বলেন, বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা শতাধিক। নদীর ভাঙনের কারণে আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি। জানি না ভাগ্যে কী আছে।’

আশিকুর রহমান আশিক নামে এক পথচারী জানান, ‘সড়ক ভেঙে যাওয়ায় অনেক ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে। সামান্য একটি মোটরসাইকেল নিয়ে যাতায়াত করতেও অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হচ্ছে।'

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করলে ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এসডিই) সন্তোষ কর্মকার বলেন, সারাদেশেই নদী ভাঙন আছে, তাই হঠাৎ করে কোনো প্রকল্প নেয়া সম্ভব না। তবে ভাঙন এলাকায় স্থায়ী বেড়িবাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা পাউবোর রয়েছে। এ ব্যাপারে হিসাব-নিকাশ করে প্রস্তাবনা পাঠানো হবে।’

ঢাকাটাইমস/১২নভেম্বর/ইএস

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :