তিন হাজার গাছ কাটার অভিযোগে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, দিনাজপুর
 | প্রকাশিত : ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:৪২

পরিবেশের ভারসাম্য ও জীব-বৈচিত্র্য বাঁচাতে বৃক্ষ রক্ষায় দিনাজপুরে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সেই সাথে বৃক্ষ নিধনকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি উঠেছে ওই মানববন্ধনে। সরকারের অনুমতি ছাড়াই খাস জমিতে রোপন করা ২ হাজার ৮০০ গাছ কাটার অভিযোগে উঠেছে সদর উপজেলার ৯নং আস্করপুর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সমবায় সমিতির সভাপতির বিরুদ্ধে। তার প্রেক্ষিতে স্থানীয় এলাকাবাসীর এ মানববন্ধন।

নিমাইখাড়ি গ্রামে সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় এই মানবন্ধনে সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। 

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- অবসরপ্রাপ্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলিম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা খোরশেদ আলী, আস্করপুর ইউপির ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার ফরিদা ইয়াসমিন, ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার ফারজিনা, নিমাইখাড়ি পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সদস্য উম্মেথানা লিপি, নুরে জান্নাতসহ এলাকাবাসী।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ১০/ ১২ বছর পূর্বে নিমাইখাড়ি পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সদস্যরা আস্করপুর ইউনিয়নের দেবীপুর থেকে নালাহার গ্রামের সীমানা পর্যন্ত প্রায় ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ক্যানেলের বাঁধের উভয় পার্শ্বের জমিতে ইউক্যালিপটাস, শিশু, বট, লম্বুসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ রোপন করেন। গত ৩ বছর পূর্বে সেই গাছ থেকে ২ হাজার ৫০০টি গাছ কর্তন করেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন এবং নিমাইখাড়ি পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির বর্তমান সভাপতি সৈয়দ আলী ৩০০ গাছ মিলে মোট ২ হাজার ৮০০টি গাছ কর্তন করে আত্মসাত করেন। গাছগুলোর বর্তমান আনুমানিক বাজার প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা। গাছ কেটে বিক্রির কোন টাকা সরকারি বা উপকারভোগীদের দেয়া হয়নি।

মানববন্ধনে সমবায় সমিতির সদস্যরা ও এলাকাবাসীরা অবিলম্বে তদন্তপূর্বক জড়িতের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

(ঢাকাটাইমস/২ডিসেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত