পর্ব-৫ ও ৬

করোনার দিনপঞ্জি: চামামার সঙ্গে আলাপ

সালাহ্ উদ্দীন পল্লব
 | প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০২০, ১৮:৫২

#চামামা_কোয়ারেন্টাইন_ডে_০৫

: মামুউউউ.... বারিন্দা দিয়া ইট্টু ফুসকি দেন দেহি?

: আরে! চামামা! তুমি বাইরে কেনো? বাসায় যাও....

: আরে মিয়া একটা কতা জিগাইতে আইছি।

: কি কথা?

: এই ধরেন ভেন্টিলিটর জিনিসটা কি?

: এটা হচ্ছে বাতাস চলাচল করার যন্ত্র। কেনো?

: খাড়ান খাড়ান! আমার বাসার ঘরের উয়ালে চাইরকুনা ফুটা ফুটা ওয়ালা তিনডা জিনিস তিন দিকে লাগানি আছে। ওডিরে ভেন্টিলিটর কয় শুনছিলাম!

: ওটাও তাই, এক ঘর থেকে অন্য ঘরে বাতাস চলাচল করে আরকি।

: আমার বাড়ির মইধ্যেই তো ১০ টার মত আছে! তাইলে শইল সাইস্থ মুন্ত্রী যে কইলো আমাগো দেশে মাত্র ৫০০ আছে?

: আরে ওটা হাসপাতালে রোগীদের নিশ্বাস নেওয়ার একটা যন্ত্র।

: তাই তো কই! একজন ডাক্তার মানুষ তো আর ভুল কতা কইবো না!

: তোমাকে কে বললো উনি ডাক্তার? উনি ডাক্তারী পড়েননি।

: হায় হায়! তাইলে এই দ্যাশ চলতাছে কেম্নে? এই দ্যাশের কুনো মুন্ত্রীরই তো কুনু বিষয়ে জ্ঞ্যান নাই! এই জইন্যই তো কুরনা রুগ নিয়া এতো সমস্যা!

: আবার কি হলো?

: আরে মিয়া যারা যেই যেই পদ নিয়া দ্যাশ চালাইবো তাগোই সেই সেই পদের জ্ঞ্যান নাই। এই জইন্যই তো পাব্লিকের ও করুনা কিয়া জ্ঞ্যান নাই! ৪৮ ঘন্টা হইলো রুগী নাই এই জইন্য কেউ আলহামদুলিল্লাহ কইতাছে না। উল্টা মুন্ত্রীগো মতন উল্টা পাল্টা আচরণ করতাছে! বেশী মানুষ ক্যান মরতাছে না এইটাই হইয়া গেছে পাব্লিকের টেনশন! কি হইবো এই দ্যাশের মামু?

: তোমাকে এসব নিয়ে ভাবতে হবে না। যাও বাসায় যাও।

: হ যাইতেছি। তয় যাওনের আগে একটা কতা কইয়া যাই। কুন তিনডা জিনিস দেখলে বুঝবেন আম্নেরে করুনা রুগে ধরছে এইডা জানেন?

: হ্যা, জানি তো। এই যেমন কফ সহ শুকনো কাশি, জ্বর আর শ্বাসকষ্ট। এর পাশাপাশি গলা ব্যাথা। এসব একসাথে চলবে।

: ঠিক! আর দ্যাশের সর্বনাশের তিনডা দিক হইলো বেক্কল আর কম জ্ঞানী মানুষ ক্ষমতায় আইবো, দ্যাশের মানুষ তাগো লইয়া মাইতা থাকবো, গরীব গো দেখাশুনার জইন্য সরকারের চেয়ে সাধারন মানুষ বেশি আগাইয়া আসবো। এর লগে লগে দ্যাশে মানুষ মরতাছেনা ক্যান এইডা নিয়া ব্যাপক আলোচনা চলবো!

: কি সব বলছো তুমি? মাথা ঠিক আছে তো তোমার!

: আমার সব মাথাই ঠিকাছে! আম্নে আম্নের গুলা চিরুনি দিয়া আচড়াইয়া সিদা করেন! গেলাম।

#চামামা_কোয়ারেন্টাইন_ডে_০৬

: হ্যালু মামু? মুবাইল ধরতে এতো দেরী ক্যান? নাস্তা খাইছেন?

: এখন দুপুর ৩ টা আর তুমি নাস্তার কথা বলছো?

: আম্নের তো অপিস বন্ধ, আম্নের মাতাও কাম করেনা! এইজইন্য ভাবছি ঘুম থিকা উঠছেন নিকি...

: হুম, হয়েছে! কেনো কল দিয়েছো বলো?

: একটা যুগফল মিলাইতে পারতেছিনা মামু!

: যোগ নিয়ে কারো কোন দিন সমস্যা হয়েছে নাকি? এটাতো লজিক! একটা যোগ আরেকটা... ব্যাস আঙ্গুল গুনে বলে দিবে কত।

: এতো সস্তা হইলে তো হইছিলোই! আইচ্ছা আম্নেরে একটা গল্প কই। একবার এক পাগলা গারদে তিন পাগল সুস্থ হইলো। ছাইড়া দেওনের আগে তাগোরে ফাইনাল একটা পরীক্ষা করনের জইন্য ডাক্তার প্রথম পাগলরে জিগাইলো, এই কও ৫+৫ সমান কত? প্রথম পাগল কইলো ৭০০! ডাক্তার যা বুঝার বুইঝা গেলো। এইবার পরের পাগলরে জিগাইলো ৫+৫ সমান কত? দ্বিতীয় পাগল কইলো ৫+৫ সমান জানুয়ারি! ডাক্তার আবারো অবস্থা বুইঝা লইলো। এরপর শেষ পাগলরে জিগাইলো, ৫+৫ সমান কত? শেষ পাগল তুড়ি বাজাইয়া কইলো দশ! তারমানে এই লোক সুস্থ, তারে ছাইড়া দেওয়া হইলো। পাগলাগারদ থিকা বাইর হওনের সুমায় গেইটের দারোয়ান জিগাইলো, ভাই আম্নে এতো কঠিন একটা উত্তর দিলেন কেম্নে? সুস্থ হওয়া লুকটা কইলো, ৭০০ থেইকা জানুয়ারি বাদ দিয়া ১০ পাইছি! দারোয়ান বেহুশ আর পাগল শহরে ঘুইরা বেড়াইতেছে!

: তো এই গল্প দিয়ে কি বোঝালে?

: দেশে কুরনা রুগ নাই তাইলে এতো হাস্পাতালের কি দরকার? সবাই তো ঘরের মইধ্যেই আছে! সুমস্ত বিদেশী এম্বাসির লুকেরা পিলেন ভাড়া কইরা চইল্যা যাইতেছে ক্যান? এই দুই বিষয় যুগ কইরা দেহেন মিয়া! আমাগো আইইডিসি কি এখন পর্যন্ত কইছে যে কুন কুন জেলা উপজেলা থিকা মোট কতডি টেস্ট লইছে? এখন পর্যন্ত কুন কুন ভিআইপি কতবার টেস্ট করাইছে? এইসব বুঝলে আর যুগফল মিলেনা মামু।

: তোমার যে মাঝে মাঝে কি হয়!! অযথাই এসব নিয়ে ভাবো। সহজ ব্যাপার সহজ ভাবে নাও।

: চুপ থাকেন মিয়া! আম্নের কিরটিবিটি আস্তে আস্তে বিছানার জাজিমে লাইগা জাইতেছে। আম্নেগো নিয়া আমার কুনো চিন্তা নাই, সরকার আর পাব্লিক নিয়া তো আমি কুনোদিনই ভাবি না। এডি বাতিলের খাতায় উইঠা গেছে ইলেকশনের টাইমেই। আমি শুধু ভাবি ডাক্তার গুলারে নিয়া। কইসাই কইয়া গালি দিলেও এইসুমায় তারা যা করতেছে... তাগোরে বুকের মইধ্যে জড়াইয়া ধরতে মন চাইতেছে। আমার চায়ের দুকান খুললে ডাক্তারগো জইন্য পায়েস চা ফ্রি। আর আম্নের মত লুকগুলারে যেন আশে পাশে না দেখি! রাখেন মিয়া ফুন!

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :