রাজধানীতে দুই নারীর লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইসম
 | প্রকাশিত : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৪৮

রাজধানীর মতিঝিল এবং হাজারীবাগ এলাকা থেকে দুই নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন- জিয়াসমিন আক্তার এবং সীমা খাতুন। আজ রবিবার মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল জলিল ঢাকাটাইমসকে জানান, শনিবার মতিঝিল থানার কমলাপুরের ইনসাফ আবাসিক হোটেলের চতুর্থ তলার ২২৭ নম্বর রুম থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় খাটের উপরে তার লাশ পাওয়া যায়।

গত বৃহস্পতিবার স্বামী আবুল কালাম ও ছেলে সিফাতকে নিয়ে ওই হোটেলের প্রথমে ২৩৪ নম্বর রুমে, পরে পাশের ২২৭ নম্বর রুমে যান ওই গৃহবধূ। পরে ওই রুম থেকেই তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকেই জিয়াসমিনের স্বামী আবুল কালাম তার ছেলেকে নিয়ে পালাতক রয়েছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

নিহতের বোন নাসরিন বলেন, আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে এসে দুপুর আড়াইটার দিকে লাশ শনাক্ত করি। আমার বাসা সাভারের বাসা থেকে গত শুক্রবার বের হয় জিয়াসমিন।

মৃত জিয়াসমিন আক্তার মাদারীপুর জেলার শিবচর থানার পুর্ব কাঁকইর গ্রামের আনোয়ার ফরাজির মেয়ে। তিন বোন এক ভাই ছোট।

এদিকে শনিবার রাজধানীর হাজারীবাগের বউবাজার এলাকার একটি বাসা থেকে সীমা খাতুন নামের এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। হাজারীবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে জানান, শনিবার হাজারীবাগ থানার বউবাজার এলাকার ৫৩/৩ নম্বর বাসার দোতলা থেকে সীমার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার নাক দিয়ে রক্ত ও মুখে ফ্যানা দেখা গেছে। নিহতের বুক-পেটে ও পিঠে চামড়ায় রক্তের জমাট বাধা, দুই হাতের আঙুলে ও নখে কালচে দাগ রয়েছে। পুলিশের ধারণা ওই নারীকে বালিশচাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

স্বামী মশিউর রহমান ও এক ছেলে ও দুই মেয়ে নিয়ে ১৫ দিন আগে ওই বাসায় ভাড়া বাসায় উঠেন তিনি। তার স্বামী একজন রিকশাচালক। ঘটনার পর থেকে স্বামী ও সন্তান কাউকেই ওই বাসায় পাওয়া যাচ্ছা না। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তার স্বামী তাকে বালিশচাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সন্তানদের নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালর মর্গে পাঠিয়েছে।

ঢাকাটাইমস/১৮ অক্টোবর/এএ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :